ঢাকা, বুধবার, ৩০ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

অ্যাড৫-এনকোভ ভ্যাকসিন ব্যবহারের অনুমোদন দিলো চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-২৯ ৮:২৫:১৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-২৯ ৮:৪৪:২৫ পিএম

কোভিড-১৯ রোগের পরীক্ষামূলক একটি ভ্যাকসিন সামরিক বাহিনীকে ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে চীন।

আজ সোমবার চীনা বায়োটেক সংস্থা ক্যানসিনো বায়োলজিক্সের এক বিবৃতিতে বলা হয়, সংস্থাটির তৈরি অন্যতম ভ্যাকসিন ‘অ্যাড৫-এনকোভ’কে সেনাবাহিনীর ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দিয়েছে চীনের সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশন। পরীক্ষামূলক ভ্যাকসিনটি এক বছরের জন্য ব্যবহার করবে সেনাবাহিনী।

বিবৃতিতে ক্যানসিনো বায়োলজিক্স চেয়ারম্যান ইউ জিউফেং বলেন, ‘কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় ভ্যাকসিনটির প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষায় সফলতা দেখা গেছে।’ তবে তিনি সতর্ক করে এটাও বলেন যে, ‘ক্লিনিক্যাল পরীক্ষাগুলো কেবল এটাই দেখায় যে, ভ্যাকসিনটি কোভিড-১৯ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা রাখে। সামরিক বাহিনীর এই ভ্যাকসিনের অনুমোদন গ্যারান্টি দেয় না যে, এটি ভবিষ্যতে বাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য আদর্শ হবে।’

ক্যানসিনো বায়োলজিক্স চীনের সামরিক বাহিনী পরিচালিত একটি মেডিকেল গবেষণা সংস্থা এবং অ্যাকাডেমি অব মিলিটারি সায়েন্সের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই ভ্যাকসিন তৈরি করেছে।

ক্যানসিনো বায়োলজিক্সের অ্যাড৫-এনকোভ ভ্যাকসিন অনেক দিন থেকেই চীনের সবচেয়ে সম্ভাবনায় ভ্যাকসিনগুলোর তালিকায় রয়েছে। যা মার্সের ১৬ তারিখে কোভিড-১৯ রোগের ভ্যাকসিনের বিশ্বের প্রথম ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হিসেবে শুরু হয়। চীনের ‍উহান শহরে এর প্রথম এবং দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল পরিচালনা করা হয় এবং ফলাফল দ্য ল্যানসেট মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত হয়।

মে মাসের মাঝামাঝিতে এই একই ভ্যাকসিন চীনের বাইরে কানাডাতেও মানব পরীক্ষার জন্য অনুমতি পায়। কানাডাতে ছয় মাসব্যাপী এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল চলবে।

এর আগে চলতি মাসের শুরুর দিকে চীনে আরো দুটি সম্ভাব্য ভ্যাকসিনকে রাষ্ট্রায়ত্ত দুটি প্রতিষ্ঠানকে ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এই দুটি ভ্যাকসিনও যথেষ্ট সম্ভাবনাময় হতে পারে বলে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যানুসারে, বিশ্বে বর্তমানে ১৩১টি ভ্যাকসিন ক্যান্ডিডেন্ট প্রাক-ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে রয়েছে এবং এখন পর্যন্ত কোনো ভ্যাকসিনই করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে বাণিজ্যিক ব্যবহারের অনুমোদন পায়নি।


ঢাকা/ফিরোজ