ঢাকা     বুধবার   ০৫ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২১ ১৪২৭ ||  ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সুর পাল্টালেন ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৪:৪১, ২ জুলাই ২০২০  

দীর্ঘদিন জনসমাগমে মাস্ক পরার বিরোধিতা করার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বললেন, তিনি ‘মাস্কের পক্ষে’। তবে কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে এখনও মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করার দরকার মনে করেন না তিনি।

মাস্ক পরা নিয়ে ট্রাম্পের সুর পাল্টানোর দিনে যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ৫২ হাজার লোক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিশ্বাস, এই ভাইরাস একদিন হঠাৎ করে ‘উধাও’ হয়ে যাবে। এই প্রাণঘাতী ভাইরাস যুক্তরাষ্ট্রের ২৭ লাখ মানুষকে আক্রান্ত করেছে এবং প্রাণ কেড়ে নিয়েছে ১ লাখ ২৮ হাজারের বেশি।

একজন শীর্ষ রিপাবলিকান ট্রাম্পকে আহ্বান জানান, যাতে তিনি মাস্ক পরে উদাহরণ তৈরি করেন। এর একদিন পরই ফক্স নিউজের কাছে মাস্ক পরার পক্ষে কথা বললেন প্রেসিডেন্ট।

বুধবার ফক্স বিজনেস নেটওয়ার্কের কাছে ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমি মাস্কের পক্ষে।’ যখন জিজ্ঞাসা করা হয় তিনি এটা পরবেন কিনা? তখন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘আমি যদি মানুষের সঙ্গে ঠাসাঠাসি অবস্থায় থাকি তাহলে অবশ্যই পরবো।’ তিনি যোগ করেন, লোকজন তাকে আগে মাস্ক পরতে দেখেছে।

ট্রাম্প বলেছেন, জনসমাগমে মাস্ক পরতে তার ‘সমস্যা নেই’ এবং মাস্ক পরা অবস্থায় নিজেকে দেখতে পাশ্চাত্য অ্যাকশন চলচ্চিত্র দ্য লোন রেঞ্জারের কাল্পনিক মুখোশধারী নায়কের মতো লাগে।

তবে গোটা যুক্তরাষ্ট্রে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা উচিত নয়, আবারও জোর গলায় বললেন প্রেসিডেন্ট। কারণ ‘অনেক জায়গা আছে যেখানে লোকজন এমনিতেই দূরত্ব নিয়ে চলে।’ ট্রাম্প বললেন, ‘যদি লোকেরা ভালোবোধ করে তাহলে তাদের এটা পরা উচিত।’

ফক্স বিজনেসের সাক্ষাৎকারে ট্রাম্পকে জিজ্ঞাসা করা হয়, কোনও একদিন করোনাভাইরাস ‘উধাও’ হয়ে যাবে এই ব্যাপারটা এখনও বিশ্বাস করেন কিনা? উত্তর দিলেন আগের মতোই, ‘আমি বিশ্বাস করি। হ্যাঁ, নিশ্চিত। কোনও একটা সময়।’

৩ জুলাই মাউন্ট রাশমোরে স্বাধীনতা উদযাপনের দিন সমর্থকদের জন্য মাস্ক পরা কিংবা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা বাধ্যতামূলক করা হবে না, এমনটাই জানা গিয়েছে।

এর আগে এপ্রিলে মার্কিন রোগ নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র (সিডিসি) করোনা ঠেকাতে লোকজনকে জনসমাগমে মাস্ক পরতে কিংবা মুখ কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখার সুপারিশ করেছিল। কিন্তু ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি এটা মানবেন না। স্বাস্থ্য গাইডলাইনের এই বিধি কখনও মানেননি তিনি, তার মতে মাস্ক পরা ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত হওয়া উচিত। গত মাসে ট্রাম্প ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেন, তার বিরুদ্ধে রাজনীতির অংশ হিসেবে কিছু লোক মাস্ক পরেন।

মে মাসে মিশিগানের একটি কারখানা ভ্রমণে যান ট্রাম্প। সেখানে কিছুক্ষণের জন্য মাস্ক পরলেও সাংবাদিকদের সামনে আসতেই খুলে ফেলেন এবং বলেছিলেন, তাকে ‘মাস্ক পরা অবস্থায় দেখে সংবাদমাধ্যমকে আনন্দ দিতে চান না।’

 

ঢাকা/ফাহিম

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়