ঢাকা     শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৪ ১৪২৭ ||  ৩০ মহরম ১৪৪২

ইসরায়েল-আমিরাতের চুক্তি ফিলিস্তিনিদের পিঠে ছুরিকাঘাত: হামাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:১৬, ১৪ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
ইসরায়েল-আমিরাতের চুক্তি ফিলিস্তিনিদের পিঠে ছুরিকাঘাত: হামাস

ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় ‘শান্তি চুক্তি’ করতে যাচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এই ঘটনাকে ফিলিস্তিনি জাতির সঙ্গে তাদের বিশ্বাসঘাতকতার শামিল বলেছে দেশটির শীর্ষ ইসলামী প্রতিরোধী সংগঠন হামাস।

ইসরায়েলের সঙ্গে আমিরাতের এই চুক্তির কঠোর প্রতিবাদ জানিয়েছে সংগঠনটি। ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের মুখপাত্র হাজেম কাসেম বলেছেন, ‘ফিলিস্তিনি জাতির স্বার্থ রক্ষা করবে না এই সমঝোতা। সংযুক্ত আরব আমিরাত ইহুদিবাদী ইসরায়েলের দখলদারিত্ব ও ফিলিস্তিনবিরোধী অপরাধযজ্ঞের ‘প্রতিদান’ হিসেবে তেল আবিবের সঙ্গে এই সমঝোতায় পৌঁছেছে।’

হামাসের আরেক মুখপাত্র ফাউজি বারহুম বলেছেন, ‘তেল আবিবের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার সিদ্ধান্ত নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাত ফিলিস্তিনি জাতির পিঠে ছুরি বসিয়েছে।’ এই সিদ্ধান্ত শুধুমাত্র ইহুদিবাদী ইসরায়েলের স্বার্থ রক্ষা করবে বলেও তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

এদিকে ফিলিস্তিনের ইসলামী জিহাদ আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতা দাউদ শিহাব বলেছেন, ‘এই সমঝোতার মাধ্যমে ইসরায়েলের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে নেতানিয়াহুর মন্ত্রিসভাকে পতনের হাত থেকে রক্ষা করা হয়েছে।’ আরব আমিরাত এ সিদ্ধান্ত নিয়ে ইসরায়েলের মোকাবিলায় নতজানু নীতি গ্রহণ করেছে এবং এর ফলে তেলআবিবের ফিলিস্তিন বিদ্বেষী তৎপরতা আরো জোরদার হবে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) ট্রাম্পের প্রচেষ্টার ফলে ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে করতে রাজি হয় আরব আমিরাত। শিগগিরই দুই দেশের কর্মকর্তারা হোয়াইট হাউজে ট্রাম্পের উপস্থিতিতে এ সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক চুক্তিতে সই করতে যাচ্ছেন।

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়