ঢাকা     শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৪ ১৪২৭ ||  ৩০ মহরম ১৪৪২

মেইল-ইন ভোটের ঝুঁকি নিয়ে মার্কিন ডাক বিভাগের সতর্কতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:০৫, ১৫ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
মেইল-ইন ভোটের ঝুঁকি নিয়ে মার্কিন ডাক বিভাগের সতর্কতা

এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্ধেকের বেশি ভোটার মেইলের মাধ্যমে তাদের ভোট দিতে পারেন। তবে লাখ লাখ ভোট সঠিক সময়ে না পৌঁছানোর ব্যাপারে বেশিরভাগ রাজ্যকে সতর্ক করেছে মার্কিন ডাকঘর পরিষেবা (ইউএসপিএস)। তাতে করে ভোট গণনা সম্পন্ন হবে না বলে দাবি তাদের।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুযায়ী ইউএসপিএস বলেছে, অন্তত পাঁচটি রাজ্য- মিশিগান, পেনসিলভানিয়া, ক্যালিফোর্নিয়া, মিসৌরি ও ওয়াশিংটনের ভোটাররা রাজ্যের বর্তমান আইনের জন্য তাদের ব্যালটে ভোট দেওয়ার জন্য যথেষ্ট সময় পাবেন না এবং তা সময়মতো পৌঁছাবে না। 

সংবাদপত্র ওয়াশিংটন পোস্ট প্রতিবেদনে লিখেছে, এ ব্যাপারে ৫০টি রাজ্যের ৪৬টি ও কলাম্বিয়া জেলাকে সতর্ক করে চিঠি লিখেছে ডাক পরিষেবা। সেখানে বলা হয়েছে, ৩ নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মেইল ভোট দেরিতে পৌঁছানোর কারণে তা অগণনীয় থাকতে পারে।

ইউএসপিএস মুখপাত্র মার্থা জনসন বলেছে, ‘রাজ্য ও স্থানীয় নির্বাচনী কর্মকর্তাদের অবশ্যই বিষয়টি নিয়ে ভাবতে হবে এবং আমাদের ডেলিভারির মানদণ্ড ও সময়সীমা বিবেচনা করতে হবে।’ তবে কয়টি রাজ্যকে সতর্ক করে চিঠি পাঠানো হয়েছে তা জানতে চাইলে উত্তর মেলেনি তার কাছে।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে জনসমাবেশ এড়াতে মেইলে ভোট দেওয়াকে সহজ মনে করছেন নির্বাচনী কর্মকর্তারা। বিশেষজ্ঞরাও একে অন্য প্রক্রিয়ার মতোই নিরাপদ মনে করছেন। তবে কোনও প্রমাণ দিতে না পারলেও ট্রাম্পের দাবি, এই প্রক্রিয়ায় ভোট জালিয়াতি হতে পারে এবং ডেমোক্রেট দলীয় প্রার্থী জো বাইডেনের সুবিধার জন্য তা করা হচ্ছে। এই ভোট প্রক্রিয়া সহজ করতে ডাক বিভাগকে আরও বাড়তি অর্থ দেওয়ার বিরোধিতা করেছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট। সাবেক ডেমোক্রেটিক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা উদ্বেগের সঙ্গে জানিয়েছেন, ডাক সেবাকে নতজানুর চেষ্টা করছেন ট্রাম্প।

ঢাকা/ফাহিম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়