RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ৯ ১৪২৭ ||  ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

এক পুরুষের হাতে ২৫ নারী খুন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:২৯, ১ ডিসেম্বর ২০২০   আপডেট: ২২:০৩, ১ ডিসেম্বর ২০২০
এক পুরুষের হাতে ২৫ নারী খুন

রাশিয়ার তদন্ত কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, তারা দেশের সবচেয়ে দুধর্ষ এক সিরিয়াল কিলারকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছেন। ওই ব্যক্তির হাতে ২৫ জনেরও বেশি নারী খুন হয়েছেন। বছরের পর বছর ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকা এই ব্যক্তি পুলিশের খাতায় ‘ভোলগা ম্যানিয়াক’ নামে পরিচিত ছিলেন।

রাশিয়ার ইনভেস্টিগেটিভ কমিটি জানিয়েছে, গ্রেপ্তারকৃত ওই ব্যক্তির বয়স ৩৮ বছর। তার নাম র‌্যাডিক তিগারভ। তিনি ২০১১ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ২৬ জন নারীকে হত্যার অভিযোগ স্বীকার করেছেন। জুতার  ছাপ, ডিএনএ ও ঘটনাস্থলে পাওয়া অন্যান্য সূত্রের ভিত্তিতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিগারভের হাতে খুন হওয়া নারীদের অধিকাংশের বয়স ৭০ এর বেশি। যেসব অ্যাপার্টমেন্টে বয়স্ক নারীরা একাকী থাকতেন তিগারভ সেখানে বিদ্যুৎকর্মী, পানির লাইন মেরামতকারী কিংবা অন্যকোনো সেবাকর্মী সেজে প্রবেশ করতো। অ্যাপার্টমেন্টে প্রবেশের পর সে ওই নারীকে ঠেসে ধরতো এবং শ্বাসরোধে হত্যা করতো। হত্যাকাণ্ডের পর তিগারভ কখনও কখনও বিভিন্ন জিনিস চুরি করতো। হাতে সবসময় গ্লাভস পরা এই তরুণ ঘটনাস্থল ছেড়ে যাওয়ার আগে প্রমাণ মুছতে জীবাণুনাশক ব্যবহার করতো।

রাশিয়ার কাজান, সামারা, তলিয়াত্তি, ইঝিভস্ক, ইউফা ও অন্যান্য শহরে হত্যাকাণ্ড চালিয়েছিল তিগারভ। ঠিক কত জন নারীকে সে খুন করেছে তার সঠিক সংখ্যা এখনও জানা যায়নি। ২০১৩ সালের পর তিগারভ সম্ভবত আর কোনো হত্যাকাণ্ড ঘটাননি। তবে ২০১৭ সালে আবারও কয়েকটি শহরে বয়স্ক নারী খুন হওয়ার ঘটনা ঘটে। ২০১৯ সালে তিগারভকে আটক করতে ৩০ হাজার পাউন্ড পুরষ্কার ঘোষণা করে পুলিশ।

ঢাকা/শাহেদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়