Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||  আশ্বিন ২ ১৪২৮ ||  ০৮ সফর ১৪৪৩

মরিশাসে গোপনে নৌঘাঁটি নির্মাণ করছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:৪৬, ৩ আগস্ট ২০২১  
মরিশাসে গোপনে নৌঘাঁটি নির্মাণ করছে ভারত

আফ্রিকার দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলীয় দেশ মরিশাসের একটি দ্বীপে গোপনে নৌঘাঁটি নির্মাণ করছে ভারত। স্যাটেলাইটে পাওয়া ছবি, আর্থিক পরিসংখ্যান ও অন্যান্য প্রমাণের ভিত্তিতে আল-জাজিরা অনলাইন এক বিশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে আগালিগা দ্বীপে এই নৌঘাঁটি নির্মান চলছে। এছাড়া সেখানে বিমান অবতরণের জন্য রানওয়ে নির্মাণ চলছে। সাগরে ভারতীয় নৌবাহিনীর টহল অভিযান পরিচালনাকারী বিমানগুলোর অবতরণের জন্য এটি নির্মাণ করা হচ্ছে।

২০১৮ সালে প্রথম মরিশাসে সামরিক ঘাঁটি নির্মাণের বিষয়ে গুজব ও সংবাদমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। ওই সময় মরিশাস ও ভারত কর্তৃপক্ষ বিষয়টি অস্বীকার করেছিল। উভয় দেশই দাবি করেছিল, দ্বীপের বাসিন্দাদের মঙ্গলের জন্য অবকাঠামো নির্মাণ করা হচ্ছে।

আগালিগা দ্বীপটি ভারতের মূল দ্বীপটি থেকে এক হাজার ১০০ কিলোমিটার দূরে এবং এখানে প্রায় ৩০০ লোক বাস করে। 

স্যাটেলাইটে পাওয়া ছবিতে দেখা গেছে, দ্বীপটিতে দুটি বড় জেটি এবং তিন কিলোমিটারের বেশি দীর্ঘ রানওয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে।

নয়া দিল্লির গবেষণা প্রতিষ্ঠান অবজারভার রিসার্চ ফাউন্ডেশনের সহযোগী ফেলো অভিষেক মিশ্র বলেন, ‘বিস্তৃত দক্ষিণ-পশ্চিম ভারত মহাসাগর ও মোজাম্বিক চ্যানেলে নজরদারি বাড়ানোর জন্য এটি ভারতের জন্য বিমান এবং নৌ উপস্থিতির জন্য একটি গোয়েন্দা অবকাঠামো। আমার ব্যক্তিগত তথ্য, আমার পরিচিত লোকদের সাথে কথোপকথনের ওপর ভিত্তি করে বলছি, ঘাঁটিটি আমাদের জাহাজের বার্থিংয়ের জন্য ব্যবহার করা হবে এবং রানওয়েটি বেশিরভাগই আমাদের পি-৮১ বিমানের জন্য ব্যবহার করা হবে।

পি-৮১ হচ্ছে ভারতের উপকূলীয় টহলের যুদ্ধবিমান। এটি নজরদারি কাজেও ব্যবহৃত হয়।

অস্ট্রেলিয়ার ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ন্যাশনাল সিকিউরিটি কলেজের গবেষখ স্যামুয়েল ব্যাশফিল্ড জানান, অনেক দেশের কাছে ভূরাজনৈতিক প্রভাব বিস্তারের হটস্পটে পরিণত হয়েছে ভারত মহাসাগর।

তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ-পশ্চিম ভারত মহাসাগরে ভারতের জন্য এমন জায়গা থাকা গুরুত্বপূর্ণ, যেখানে নিজেদের জাহাজগুলোকে সহায়তা করতে পারে তাদের বিমান এবং সেখানে অপারেশনের জন্য লঞ্চিং প্যাড হিসাবে ব্যবহার করা যায়।’
 

ঢাকা/শাহেদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়