ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২২ ||  মাঘ ৫ ১৪২৮ ||  ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

‘ঘুষ ও হুমকি’ ইয়েমেনে মানবাধিকার লঙ্ঘনের তদন্ত বন্ধ করেছিল সৌদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৪১, ১ ডিসেম্বর ২০২১  
‘ঘুষ ও হুমকি’ ইয়েমেনে মানবাধিকার লঙ্ঘনের তদন্ত বন্ধ করেছিল সৌদি

সদস্য দেশগুলোকে ‘ঘুষ ও হুমকি’ দেওয়ার মাধ্যমে ইয়েমেনের সংঘাতে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ তদন্ত বন্ধের চেষ্টা করেছিল সৌদি আরব। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে বুধবার দ্য গার্ডিয়ান এ তথ্য জানিয়েছে। 

সৌদি আরবের এই প্রচেষ্টা শেষ পর্যন্ত সফল হয়েছিল। জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল গত অক্টোবরে স্বাধীন যুদ্ধাপরাধ তদন্তের মেয়াদ না বাড়ানোর পক্ষে ভোট দেয়। গত ১৫ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কাউন্সিলে উত্থাপিত কোনো প্রস্তাবের পরাজয় ছিল এটি।

গার্ডিয়ানকে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, একটি ঘটনায় দেখা গেছে, ৭ অক্টোবর কাউন্সিলের প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট না দিতে বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল মুসলিম দেশ ইন্দোনেশিয়াকে হুমকি দিয়েছিল সৌদি আরব। রিয়াদ জানিয়েছিল, সৌদি আরবের বিপক্ষে ভোট দিলে ইন্দোনেশিয়ার মুসলিমদের মক্কায় যাওয়ার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হবে।

আরেকটি ক্ষেত্রে দেখা গেছে, ভোটের সময় আফ্রিকার দেশ টোগো ঘোষণা দিয়েছিল তারা রিয়াদে নতুন দূতাবাস খুলবে এবং সন্ত্রাসবাদবিরোধী কর্মকাণ্ডে সমর্থন দিলে তারা রিয়াদের কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা পাবে। ইন্দোনেশিয়া ও টোগো গত বছর হিউম্যান রাইটস কাউন্সিলের ইয়েমেন প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দেয়। 

২০১৫ সাল থেকে ইয়েমেনে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে সৌদি নেতৃত্বাধীন আরব জোট। ছয় বছর ধরে চলা এই হামলায় এক লাখের বেশি ইয়েমেনি নিহত হয়েছে এবং বাস্তুচ্যুত হয়েছে ৪০ লাখ মানুষ।

ঢাকা/শাহেদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়