ঢাকা     বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২ ||  শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯ ||  ১১ মহরম ১৪৪৪

নিখোঁজ সন্তানদের খোঁজ নিতে গিয়ে পুলিশের কাছে হেনস্তা হতে হয়েছে ব্রিটিশ মুসলিমদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৫০, ৪ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ২১:৫০, ৪ ডিসেম্বর ২০২১
নিখোঁজ সন্তানদের খোঁজ নিতে গিয়ে পুলিশের কাছে হেনস্তা হতে হয়েছে ব্রিটিশ মুসলিমদের

সিরিয়ায় সন্ত্রাসী গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের কাছে পাচার হওয়ার পর নিখোঁজ সন্তানদের খোঁজ নিতে গিয়ে ব্রিটিশ পুলিশের কাছে হেনস্তার শিকার হতে হয়েছে মুসলিম পরিবারগুলোকে। গত সপ্তাহে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের একটি অধিবেশনে উত্থাপিত প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

মুসলিম পরিবারগুলো অভিযোগ করেছে, নিখোঁজ সন্তান কিংবা পরিবারের সদস্যদের বিষয়ে পুলিশের কাছে জানাতে গিয়ে উল্টো তারাই সন্দেহভাজন হয়েছেন। পুলিশ তাদের কাছ থেকে তথ্য নেওয়ার চেষ্টা করেছে এবং এক পর্যায়ে তাদের দিকে ফিরেও তাকায়নি।

একটি পরিবার জানিয়েছে, পুলিশ তাদের সঙ্গে ‘অপরাধীর মতো আচরণ করেছে।’ পরে তারা বুঝতে পারেন তাদেরকে সহযোগিতা নয়, বরং পুলিশের আগ্রহ ইসলামিক স্টেট সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহে। এমনকি পুলিশ তাদের বাড়িতেও অভিযান চালিয়ে তছনছ করেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নারী জানিয়েছেন, তার বোন নিখোঁজ হওয়ার পর তাকে খুঁজে পেতে তিনি পুলিশকে সহযোগিতা করেছিলেন। কিন্তু একপর্যায়ে তিনি দেখলেন তার বোনকে খোঁজার কোনো আগ্রহই নেই পুলিশের।

ওই নারী বলেন, ‘আমরা ভেবেছিলাম পুলিশ আমাদের সাহায্য করবে। সময়ের সাথে সাথে, আমরা দেখতে পেলাম পুলিশ ও কর্তৃপক্ষ আমাদের সাহায্য করার ব্যাপারে কোনো কথা বলছে না, কিন্তু তারা শুধুমাত্র তথ্য চাইছে। তথ্য পাওয়ার পর তারা আমাদের ব্যাপারে তাদের হাত ধুয়ে ফেলেছিল। আমাদের কখনই কোনো সহযোগিতা করা হয়নি। আমি অনুভব করেছিলাম,  আমাকে প্রমাণ করতে হবে যে আমি তাদের কাছে চরমপন্থী ছিলাম; আমি অনুভব করেছিলাম, আমি সবসময় সন্দেহভাজন হিসেবে রয়েছি।’

অপর একটি পরিবারের সদস্য বলেন, ‘আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল যেন আমি একজন সন্দেহভাজন এবং পরে তারা সিদ্ধান্ত নেয়, আমি তেমনটা নই। তারা সত্যিই আমাকে সহযোগিতা করতে চায়নি। তাদের সাথে যোগাযোগ করা সত্যিই কঠিন হয়ে পড়েছিল।’

ঢাকা/শাহেদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়