ঢাকা, বুধবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

৫ কোটি টাকা আত্মসাতে হিসাব কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

এম এ রহমান মাসুম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-২০ ৭:৩৭:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-২০ ১০:০৭:৫৭ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ভূমির ক্ষতিপূরণের ৫ কোটি টাকা আত্মসাত মামলার চার্জশিভুক্ত আসামি কিশোরগঞ্জের জেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেন তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের সহকারী পরিচালক মো. আবদুল ওয়াদুদ।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য রাইজিংবিডিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওই মামলায় চার্জশিটভুক্ত আসামি কিশোরগঞ্জের প্রাক্তন ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা মো. সেতাফুল ইসলামসহ নয়জন।

ভূমি অধিগ্রহণের ৫ কোটি টাকা আত্মসাতের ঘটনায় ২০১৮ সালের ১৭ জানুয়ারি সেতাফুল ইসলামকে গ্রেপ্তার ও মামলা করেছিল দুদক। ভূমির ক্ষতিপূরণের প্রায় ১৪ কোটি টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়েছেন সরকারের ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা সেতাফুল ইসলাম, এ অভিযোগে অনুসন্ধান শুরু করেছিল দুদক। এরপরই কিশোরগঞ্জের জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসের অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামানের বাসা থেকে ৯২ লাখ টাকা উদ্ধার করেছিল দুদকের তদন্ত দল। 

চার্জশিটভুক্ত অন্য আসামিরা হলেন- কিশোরগঞ্জের জেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা মো. সিরাজুল ইসলাম, সাবেক সুপার (বর্তমানে নিরীক্ষা ও হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা, হিসাব মহানিয়ন্ত্রক কার্যালয়, ঢাকা) মোহাম্মদ গোলাম হায়দার, অডিটর মো. সৈয়দুজ্জামান, অফিস সহায়ক মো. দুলাল মিয়া, সোনালী ব্যাংক কিশোরগঞ্জ শাখার সাবেক এজিএম (বর্তমানে অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার, ময়মনসিংহ) মো. মাহবুবুল ইসলাম খান, পূবালী ব্যাংক কিশোরগঞ্জ শাখার ব্যবস্থাপক মুখলেছুর রহমান, মেসার্স সাদিয়া এন্টারপ্রাইজের প্রোপ্রাইটর মো. আমিনুল ইসলাম ও রাজধানীর ডেমরা থানা এলাকার বাসিন্দা মো. জাহাঙ্গীর আলম।

আসামিদের বিরুদ্ধে প্রতারণা, জালিয়াতি ও সরকারি ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে কিশোরগঞ্জের এলএ (ভূমি অধিগ্রহণ) কেস নম্বর ১০/২০১৬-১৭-এর ৫ কোটি টাকা আত্মসাত করার অভিযোগ আনা হয়েছে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ আগস্ট ২০১৯/এম এ রহমান/রফিক

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন