ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বালিশ কাণ্ডেও জিকে শামীম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-২১ ১:২০:২৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-২২ ৮:৩৯:৪৩ এএম

গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জিকে শামীমকে চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজির অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শুক্রবার ভোরে তাকে গুলশান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। 

তার গ্রুপ অব কোম্পানির তত্ত্বাবধানেই রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে সাপ্লাই করা হয় ব্যাপক দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠা বালিশ।

শনিবার সকালে র‌্যাব হেডকোয়ার্টার সিনিয়র এএসপি মিজানুর রহমান রাইজিংবিডিকে জানান, শামীমকে আদালতে তোলা হবে। সে বিভিন্ন সময়ে টেন্ডার ও চাঁদাবাজি এবং সরকারি টাকা দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত ছিল। সে বিষয়ে তদন্ত করা হবে।

র‌্যাব জানতে পেরেছে, রূপপুরের বালিশ কাণ্ডের মাধ্যমে সবচেয়ে বেশি অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে জিকে শামীম। সেখান থেকে তার প্রতিষ্ঠান জিকে গ্রুপ সবচেয়ে বেশি লাভবান হয়।  রূপপুরের গ্রিন সিটি আবাসন পল্লী নির্মাণের ব্যয় তিন হাজার কোটি টাকারও বেশি। সেখানে বড় অঙ্কের কয়েকটি কাজ জিকে শামীম নিজেই করছেন।

গ্রিন সিটি আবাসন পল্লী নির্মাণের প্রায় সব কাজই জিকে শামীম পান। প্রকল্পের জন্য কেনা হয় বালিশ। কিন্তু বালিশ কেনায় বড় অঙ্কের দুনীর্তির তথ্য মেলে। বালিশ নিচ থেকে ওপরে উঠানোর শ্রমিক ব্যয় ধরা হয় ৯’শ থেকে ১ হজার টাকা। এছাড়া বালিশ কেনায় বতর্মান বাজার থেকে ৩ গুণ বাড়তি টাকা নেয়া হয়। এ নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে দেশব্যাপী আলোচনার ঝড় ওঠে। বিষয়টি তদন্ত করছে দুনীর্তি দমন কমিশন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার ভোরে শামীমকে আটক করে তাকে নিয়ে নিকেতনের কার্যালয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় বিপুল পরিমাণ নগদ টাকা, প্রায় দুইশ কোটি টাকার এফডিআর, অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার করে র‌্যাব।


ঢাকা/মাকসুদ/হাকিম মাহি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন