ঢাকা, সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলে ঘুষ লেনদেন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-২১ ৬:৪৮:৪৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-২১ ৮:০৮:০০ পিএম

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, ‘মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহার করে অপরাধীরা যাতে ঘুষ লেনদেন কিংবা জঙ্গী অর্থায়ন করতে না পারে সেটা নিশ্চিত করা জরুরি। কারণ, কমিশনে অভিযোগ রয়েছে অপরাধীরা এ জাতীয় চ্যানেল ব্যবহার করে ঘুষ গ্রহণসহ বিভিন্ন অপরাধ করে। এ বিষয়ে কমিশন উদ্বিগ্ন।’

বৃহস্পতিবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস সমূহের নির্বাহীদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘সকলের সহায়তায় পদ্ধতিগত উন্নয়নের মাধ্যমে মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলে ঘুষ লেনদেন ও মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ করতে হবে। আপনারা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রতিটি লেনদেনের বিস্তারিত তথ্য সংরক্ষণ করবেন এবং সন্দেহজনক লেনদেন সংঘটিত হলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিপোর্টিং এজেন্সিকে রিপোর্ট করবেন। প্রতিটি লেনদেনের ডিজিটাল রসিদ রাখতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘কমিশনে একজন কর্মকর্তাকে ফোকাল পয়েন্ট হিসেবে নিয়োগ করা হবে। তিনি অনুসন্ধান বা তদন্তের স্বার্থে কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে আপনাদের কাছে তথ্য চাইলে তাৎক্ষণিকভাবে ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তাকে তথ্য প্রদান করবেন।’

এসময় বিকাশ লি. এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদির ও ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কাশেম মো. শিরিন দুদক চেয়ারম্যানকে জানান, তাদের মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলের সকল রেকর্ডপত্র যথাযথভাবে সংরক্ষণ করা হয়। দুদক চাইলে এসব লেনদেনের তথ্য তারা কমিশনকে সরবরাহ করবে।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন রকেট-এর এসইভিপি আবেদুর রহমান সিকদার, বিকাশের হেড অব রেগুলেরটরি অ‌্যান্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার হুমায়ুন কবীর, বাংলাদেশ ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার মো. মেজবাউল হক, ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র, দুদকের মানিলন্ডারিং অনুবিভাগের মহাপরিচালক আনম আল ফিরোজ, প্রশিক্ষণ ও আইসিটি অনুবিভাগের মহাপরিচালক একেএম সোহেল, গোয়েন্দা শাখার পরিচালক মীর মো. জয়নুল আবেদীন শিবলী, মানিলন্ডারিং অনুবিভাগের পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী প্রমুখ।

একই স্থানে কুরিয়ার সার্ভিসের নির্বাহীদের নিয়ে বৈঠক করেন দুদক চেয়ারম্যান। এ সময় তিনি বলেন, ‘মালামাল পাঠানোর ক্ষেত্রে প্রেরক ও প্রাপকের সঠিক পরিচয় কুরিয়ার সার্ভিস পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানকে নিশ্চিত করতে হবে।’

 

ঢাকা/এম এ রহমান/সনি

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন