ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৭, ০৩ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

রোগী ফেরত পাঠানোর অভিযোগ পায়নি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৬-৩০ ১০:৫৮:০৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৬-৩০ ১০:৫৮:০৩ পিএম

হাসপাতালে আসা সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা না দিয়ে ফেরত পাঠানোর কোনো অভিযোগ পায়নি স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (৩০ জুন) সংস্থাটির পরিচালক মো. আমিনুল হাসানের স্বাক্ষরে হাইকোর্টকে দেওয়া এক প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চে এ প্রতিবেদন   উপস্থাপন করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার। এসময় শুনানিতে অংশ নেন ব্যারিস্টার অনিক আর হক, ব্যারিস্টার মাহফুজুর রহমান মিলন, অ্যাডভোকেট ইয়াদিয়া জামান ও অ্যাডভোকেট এএম জামিউল হক। আদালত আগামী ৬ জুলাই পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চিকিৎসা না দিয়ে ফেরত পাঠানোর অভিযোগ পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ৫০ বা তার বেশি শয্যার বেসরকারি হাসপাতালে (যেমন-স্কয়ার, এভার কেয়ার, বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতাল ইত্যাদি) নির্দেশনা মেনে কোভিড-১৯ ও নন-কোভিড রোগীদের পৃথকভাবে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তিনটি বিষয়ে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করে। প্রতিবেদনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জারি করা নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে পালিত হচ্ছে কিনা সে বিষয়ে বলা হয়, কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে আইসিইউ-এ চিকিৎসাধীন কোভিড-১৯ রোগীর কাছ থেকে মাত্রাতিরিক্ত বা অযৌক্তিক ফি আদায় না করতে পারে সে বিষয়ে মনিটরিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অক্সিজেন সিলিন্ডারের খুচরা মূল্য এবং রি-ফিলিংয়ের মূল্য নির্ধারণ করার ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রীয় ঔষধাগারের পরিচালককে (ভান্ডার ও সরবরাহ) নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত ১৫ জুন হাইকোর্ট ৫টি রিট আবেদনের ওপর শুনানি শেষে   চিকিৎসা না দিয়ে সাধারণ রোগীদের ফেরত পাঠানোর ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেন। আদালত আদেশে অবহেলায় মৃত্যু, আইসিইউ বণ্টন, বেসরকারি হাসপাতাল অধিগ্রহণ, অক্সিজেন সরবরাহ ও ঢাকা সিটি করপোরেশন এলাকা লকডাউন নিয়ে মোট ১১ দফা নির্দেশনা ও অভিমত দেন।

এসব নির্দেশনা ও অভিমতের মধ্যে আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতির আদালত গত ১৬ জুন ৭টি নির্দেশনা স্থগিত করেন।


ঢাকা/মেহেদী/জেডআর