ঢাকা     শনিবার   ১৫ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ৩১ ১৪২৭ ||  ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

ওয়ালটন শোরুমে ডাকাতি: দুইজন রিমান্ডে, একজন কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:২১, ৫ জুলাই ২০২০  
ওয়ালটন শোরুমে ডাকাতি: দুইজন রিমান্ডে, একজন কারাগারে

পান্থপথের ওয়ালটন প্লাজা শোরুমে ডাকাতির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুই আসামির এক দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।  আর এক আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রোববার (০৫ জুলাই) ঢাকা মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে যাওয়া দুই আসামি হলেন- সুমন ও রানা।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুমন চন্দ্র শীল তিন আসামিকে আদালতে হাজির করেন।  সুমন ও রানার সাত দিনের রিমান্ড এবং সাথীকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আসামিদের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।

গত ২৩ জুন মধ্যরাতে পান্থপথের ওয়ালটন প্লাজা শোরুমে ডাকাতির ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনায় ওয়ালটন শোরুমের টিম ম্যানেজার রানা মিয়া পরেরদিন শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, পান্থপথ ওয়ালটন প্লাজার মালামাল কিশোরগঞ্জ জেলার ডিলারের কাছে (রহমত ইলেকট্রনিকস) পৌঁছানোর উদ্দেশে ওয়ালটন কোম্পানির নিজস্ব পরিবহনে করে (ঢাকা মেট্রো ড-১১-৭০-৩৫) শোরুমের কর্মচারী জিহাদ হোসেন, সাদ্দাম হোসেন, মো. তারেক হোসেন মাধ্যমে মালামাল ওঠানো হয় এবং পণ্যের চালান কপি ড্রাইভার আনোয়ার হোসেন এবং হেলপার মিরাজের কাছে হস্তান্তর করে শোরুম কর্মচারীরা এলাকা থেকে চলে যায়।

এরপর খালি পিকআপে ৭-৮ জন এসে চাপাতির ভয় দেখিয়ে ওয়ালটন কোম্পানির গাড়ির ড্রাইভার ও হেলপারদের গাড়িতে ওঠায় এবং বিভিন্ন জায়গায় মালামাল নামিয়ে তারা পালিয়ে যায়।  ২৪টি ওয়ালটন ফ্রিজ, ৫টি এলইডি টেলিভিশন, একটি মোবাইল ফোন এবং ড্রাইভারের সঙ্গে থাকা সাড়ে ৪ হাজার টাকা ও হেলপারের সঙ্গে থাকা ৮০০ টাকা নিয়ে যায় ডাকাতরা।

মামলায় তদন্ত সাপেক্ষে গ্রেপ্তার আরেক আসামি রবিউল ইসলাম ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন।

**কারাগারে বসেই ওয়ালটন শোরুমে ডাকাতির পরিকল্পনা: ডিসি হারুন


ঢাকা/মামুন/জেডআর

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়