ঢাকা     শনিবার   ০৮ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৪ ১৪২৭ ||  ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

পুলিশি নির্যাতনে কিডনি নষ্ট: বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৮:২৬, ৬ জুলাই ২০২০  

যশোরে পুলিশের হাতে নির্মম নির্যাতনের কারণে ইমরান হোসেন নামে এক ব্যক্তির দুটি কিডনি নষ্ট হওয়ার ঘটনা বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

যুগ্ন জেলা জজ পদমর্যাদার একজন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাকে তদন্তের দায়িত্ব দিতে যশোরের জেলা ও দায়রা জজকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে আগামী ৬০ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে।

সোমবার (০৬ জুলাই) বিচারপতি জেবিএম হাসানের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব।  রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সোমেরন্দ্র নাথ বিশ্বাস।

এর আগে গত ১৮ জুন যশোর জেলার সদর উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামের নেছার আলীর ছেলে ইমরান হোসেনকে পুলিশ নির্মম  নির্যাতন করে।  এতে তার দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে যাওয়ার ঘটনায়  হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়।  রিটে বিচার বিভাগীয় তদন্ত চাওয়া হয়।

জনস্বার্থে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার হুমায়ন কবির পল্লব এবং ব্যারিস্টার মোহাম্মদ কাওছার হাইকোর্টে এ রিট দায়ের করেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সচিব, যশোরের পুলিশ সুপার, যশোরের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশের মহাপরিদর্শক, যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং যশোরের সিভিল সার্জনকে বিবাদী করা হয়েছে রিটে।

রিট আবেদনে বলা হয়, গত ৮ জুন যশোর জেলার সদর উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামের নেছার আলীর ছেলে ইমরান হোসেনকে সাজিয়ালী ফাঁড়ির পুলিশ নির্মম প্রহারের কারণে তার দুটি কিডনিই অকেজো হয়ে গেছে বলে পরেরদিন ৯ জুন বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।

 

ঢাকা/মেহেদী/জেডআর

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়