RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২৫ জানুয়ারি ২০২১ ||  মাঘ ১১ ১৪২৭ ||  ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

প্রকাশক দীপন হত্যা মামলায় পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ১৯ নভেম্বর

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:৪১, ৯ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৪:৫৩, ৯ নভেম্বর ২০২০
প্রকাশক দীপন হত্যা মামলায় পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ১৯ নভেম্বর

প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. প্রদীপ বিশ্বাস সাক্ষ্য দিয়েছেন।

সোমবার (০৯ নভেম্বর) ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালের বিচারক মজিবুর রহমানের আদালতে তিনি সাক্ষ্য দেন। তার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত আগামী ১৯ নভেম্বর পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখ ধার্য করেন।

এ নিয়ে মামলাটিতে এখন পর্যন্ত ২৬ জন সাক্ষীর মধ্যে ২১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো।

আসামিরা হলেন- বরখাস্ত হওয়া মেজর সৈয়দ জিয়াউল হক জিয়া ও আকরাম হোসেন ওরফে হাসিব ওরফে আবির ওরফে আদনান ওরফে আবদুল্লাহ, মইনুল হাসান শামীম ওরফে সামির ওরফে ইমরান, আবদুর সবুর সামাদ ওরফে সুজন ওরফে রাজু ওরফে স্বাদ, খাইরুল ইসলাম ওরফে জামিল ওরফে জিসান, আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাব, মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন ওরফে শাহরিয়ার ও শেখ আবদুল্লাহ ওরফে জুবায়ের ওরফে জায়েদ ওরফে জাবেদ ওরফে আবু ওমায়ের।

ফয়সল আরেফিন দীপনকে ২০১৫ সালের ৩১ অক্টোবর শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটে জাগৃতি প্রকাশনীর কার্যালয়ে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।  একই দিন লালমাটিয়ায় শুদ্ধস্বর প্রকাশনীর কার্যালয়ে ঢুকে এর স্বত্বাধিকারী আহমেদুর রশীদ টুটুল, লেখক রণদীপম বসু ও প্রকৌশলী আবদুর রহমানকে দুর্বৃত্তরা হত্যার চেষ্টা করে।

ফয়সল আরেফিন দীপনকে হত্যার পর ওইদিনই তার স্ত্রী রাজিয়া রহমান শাহবাগ থানায় মামলা করেন।

জিয়া ও আকরাম হোসেন পলাতক থাকায় গত ১৯ মার্চ একই ট্রাইব্যুনাল তাদের বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করেন। এরপর গত ১৬ মে তাদের সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ দেওয়া হয়। ১৩ অক্টোবর আট আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত।

ঢাকা/মামুন/জেডআর

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়