ঢাকা     বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২ ||  শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯ ||  ১১ মহরম ১৪৪৪

চাঁদাবাজির মামলায় কারাগারে সাবেক এমপি আউয়াল

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:০৫, ৫ জুন ২০২১   আপডেট: ১৬:১৪, ৫ জুন ২০২১
চাঁদাবাজির মামলায় কারাগারে সাবেক এমপি আউয়াল

পল্লবী থানায় দায়ের করা ২০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির মামলায় লক্ষ্মীপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এম এ আউয়াল এবং টিটু নামে আরেক আসামিকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শনিবার (৫ জুন) দুই দিনের রিমান্ড শেষে আসামিদের আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পল্লবী থানার সাব-ইন্সপেক্টর অনয় কুমার। 

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাস তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ২ জুন আউয়ালসহ দুই জনের দুইদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

২০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগে অবসরপ্রাপ্ত মেজর মোস্তফা কামাল গত মাসে আউয়ালের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন।

সাবেক সাংসদ এবং ইসলামী গণতান্ত্রিক পার্টির চেয়ারম্যান এম এ আউয়ালকে পল্লবীর সাহিনুদ্দিন হত্যা মামলায় চার দিনের রিমান্ড শেষে গত ২৬ মে কারাগারে পাঠানো হয়। এরপর থেকে তিনি কারাগারেই আছেন। তাকে চাঁদাবাজির ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ১৬ মে পল্লবীতে ৬ বছরের ছেলে মাশরাফির সামনে বাবা সাহিনুদ্দিনকে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।  বিকাল সাড়ে চারটায় পল্লবীর ১২ নম্বর সেকশনের ৩১ নম্বর রোডের ৩৬ নম্বর বাড়ির সামনে ঘটনাটি ঘটে।  সাহিনুদ্দিন  পল্লবীর ১২ নম্বর সেকশনের সিরামিক রোডের বাসিন্দা ছিলেন। এ ঘটনায় সাহিনুদ্দিনের মা আকলিমা আউয়ালসহ ২০ জনের নামে পল্লবী থানায় মামলা দায়ের করেন।

২০ মে ভোরে ভৈরবের একটি মাজার থেকে আউয়ালকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। এই হত্যা মামলায় আটক আরো দুজন আসামী পুলিশের সঙ্গে ক্রসফায়ারে মারা গেছেন।

মামুন/এমএম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়