Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ৩০ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ১৫ ১৪২৮ ||  ১৮ জিলহজ ১৪৪২

নুসরাতের আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলায় স্বামী কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২৩:০৩, ১৮ জুন ২০২১   আপডেট: ০৮:০৮, ১৯ জুন ২০২১
নুসরাতের আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলায় স্বামী কারাগারে

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে সংসদ সচিবালয় কোয়ার্টারে নুসরাত জাহানের আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলায় তার স্বামী মিল্লাত মামুনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শুক্রবার (১৮ জুন) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বাকী বিল্লাহ শুনানি শেষে জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এক দিনের রিমান্ড শেষে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার উপ-পরিদর্শক (নিরস্ত্র) জামিল হোসাইন আসামি মিল্লাত মামুনকে আদালতে হাজির করে সংশ্লিষ্ট থানায় দায়ের করা মামলায় কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

মিল্লাত মামুনের পক্ষে তার আইনজীবী পীযূষ কান্তি রায় জামিনের আবেদন করেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

১৫ জুন সকালে রাজধানীর কল্যাণপুর থেকে মিল্লাত মামুনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-২ এর একটি দল। পরদিন আদালত তার এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

নুসরাতের আত্মার ঘটনায় তার বাবা রত্ম কান্তি রোয়াজা ১২ জুন শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, মামুন মিল্লাত নিজেকে বিসিএস ক্যাডার হিসেবে পরিচয় দিয়ে নুসরাত জাহানকে ২০১৯ সালে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করে ধর্মান্তরিত করে। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে মিল্লাত নুসরাতকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতো। নুসরাত তার বাবাকে তা জানায়। মিল্লাত জুয়া, মাদক ও পরকিয়ায় আসক্ত ছিল। ১২ জুন সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নুসরাত তার বাবাকে ফোন দিয়ে জানায়, মিল্লাত তাকে শারীরিক নির্যাতনসহ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছে। তাকে বাসা ছেড়ে চলে যেতে বলেছে। না গেলে হত্যার হুমকি দিয়েছে। বেলা দেড়টার দিকে পুলিশ রত্ম কান্তি রোয়াজাকে নুসরাতের মৃতদেহ উদ্ধারের কথা জানায়।

ঢাকা/মামুন/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়