Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ২৬ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১০ ১৪২৮ ||  ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

রাসেল-শামীমাকে মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদ, মিলছে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৫০, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৩:৩৩, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
রাসেল-শামীমাকে মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদ, মিলছে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

শামীমা নাসরিন ও মোহাম্মদ রাসেল (ফাইল ফটো)

বহুল আলোচিত ও বিতর্কিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মোহাম্মদ রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনকে রিমান্ডে মুখোমুখি করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে দুজনকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

শনিবার রাতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার এসআই ওয়াহেদুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘শুক্রবার রাতে রাসেল ও শামীমাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে রাসেল মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে অসুস্থ হয়ে যান। এ কারণে ওই রাতে আর জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তবে, শনিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ওই দুজনকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। মূলত আমরা দুটি বিষয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করছি। একটি হলো—যে গ্রাহক প্রতারণার অভিযোগে মামলাটি করেছেন, সে বিষয়ে। পাশাপাশি, গ্রাহকের কাছ থেকে নেওয়া বিপুল পরিমাণ টাকা কোথায়, কী অবস্থায় আছে তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এসব বিষয়ে রিমান্ডের প্রথম দিনে তারা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। তারা মুখ খুলতেও শুরু করেছেন। তাদের তথ‌্য যাচাই করা হচ্ছে। রিমান্ডে তাদের দেওয়া তথ্য আদালতে উপস্থাপন করা হবে। শনিবার সকাল থেকে রাসেল ও তার স্ত্রীর কাছে বিভিন্ন বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। তারা দুজনেই স্বাভাবিকভাবে সব প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন।  তাদের প্রতিষ্ঠানের শুরু, বিভিন্ন অফার, কোম্পানির দায়-দেনা এবং সেসব দেনা কীভাবে পরিশোধ করবেন, তা বলেছেন।’

ইভ্যালির পুরো নিয়ন্ত্রণে ছিলেন সিইও রাসেল ও চেয়ারম্যান শামীমা। এ প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ পর্যায়ে আছেন তাদের নিকট স্বজনরা। তারাই এসব বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিতে পারবেন বলে তদন্ত সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন।

এক গ্রাহকের করা মামলায় গত বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বাসা থেকে রাসেল ও শামীমাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। ওই মামলায় তাদের আদালতে হাজির করে রিমান্ড চায় গুলশান থানা পুলিশ। আদালত তাদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গ্রাহক এবং পণ‌্য সরবরাহকারীদের কাছে ইভ‌্যালির ৪০৪ কোটি টাকা দেনা থাকলেও প্রতিষ্ঠানটির অ‌্যাকাউন্টে আছে মাত্র ৩৫ লাখ টাকা।

ঢাকা/মাকসুদ/রফিক

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়