ঢাকা     শনিবার   ২১ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪২৯ ||  ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩

তুচ্ছ ঘটনায় খুন করা হয় হৃদয়কে

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:০৯, ২৮ ডিসেম্বর ২০২১  
তুচ্ছ ঘটনায় খুন করা হয় হৃদয়কে

হৃদয় হোসেন হত্যা মামলার অন্যতম আসামি রিয়াজুলকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি

গাজীপুরে মো. হৃদয় হোসেন (২০) হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে তাকে খুন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিআইডির কর্মকর্তারা।

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর মালিবাগে সিআইডির কার্যালয়ে সংস্থাটির বিশেষ পুলিশ সুপার মুক্তা ধর সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘হৃদয় হত্যাকাণ্ড দেশজুড়ে বেশ চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছিল। সিআইডি এ ঘটনায় ছায়া তদন্ত করে। সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) রাতে ডেমরা থেকে হৃদয় হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মো. রিয়াজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দায় স্বীকার করেছেন রিয়াজুল।’

তিনি জানান, হৃদয় হোসেন গত ১০ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় বাড়ির পাশে মো. রিয়াজুল ইসলামের মুদি দোকান থেকে মশার কয়েল কেনেন। বাসায় ফিরে হৃদয় দেখেন যে, কয়েলটি নিম্ন মানের। পরদিন সকাল ৯টার দিকে কয়েলটি নিয়ে রিয়াজুলের দোকানে গিয়ে অভিযোগ জানান হৃদয়। এতে রিয়াজুল ক্ষিপ্ত হয়ে হৃদয়কে গালিগালাজ করেন। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে রিয়াজুলের ভাগ্নে রাকিব, উজ্জ্বল, আলমগীর ও তুহিন হৃদয়কে এলোপাথারি মারতে থাকেন। রিয়াজুল তার হাতে থাকা সুইস গিয়ার ছুরি দিয়ে হৃদয়ের পিঠে আঘাত করেন। হৃদয়ের চিৎকার শুনে তার বাবা আনোয়ার হোসেন এগিয়ে এলে রিয়াজুল ছুরি দিয়ে আনোয়ার হোসেনের হাতেও আঘাত করেন। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে রিয়াজুলসহ অন্যরা দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয়রা আহত বাবা-ছেলেকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। ওই দিন সন্ধ্যায় হৃদয়কে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। এ ঘটনায় পাঁচজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন আনোয়ার হোসেন।

মাকসুদ/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়