ঢাকা     সোমবার   ২৩ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪২৯ ||  ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

বাসায় ডেকে নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করত তারা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:৩৫, ২৩ জানুয়ারি ২০২২  
বাসায় ডেকে নিয়ে ব্ল্যাকমেইল করত তারা

এক বিউটি ব্লগারকে যৌন নির্যাতন ও হত্যাচেষ্টার মূল হোতা ইশতিয়াক আমিন ফুয়াদসহ তিনজনকে রাজধানীর ফার্মগেট ও মহাখালী থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) বিকেলে কারওয়ানবাজার র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে বাহিনীর মুখপাত্র কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, শনিবার রাত ও রোববার সকালে ফার্মগেট ও মহাখালীতে অভিযান চালিয়ে ইশতিয়াক আমিন ফুয়াদ ওরফে সানি, সাইমা শিকদার নিরা ওরফে আরজে নিরা ও আব্দুল্লাহ আফিফ সাদমান ওরফে রিশুকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা সংঘবদ্ধ অপরাধ চক্রের সদস্য। ইশতিয়াক এ চক্রের মূল হোতা। আরজে নিরা ও সাদমান তার সহযোগী। তারা প্রায় দুই বছর ধরে নানা কৌশলে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নারী-পুরুষদের জিম্মি, ব্ল্যাকমেইল ও প্রতারণা করে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। ওই চক্রের সদস্যরা সাধারণত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন জনের সঙ্গে সখ্য গড়ে। পরে বিভিন্ন সময়ে কৌশলে ধারণ করা আপত্তিকর ছবি/ভিডিও দিয়ে তাদের ব্ল্যাকমেইল করে থাকে।

অপরাধ চক্রের সদস্যরা অপকর্মের জন্য তাদের ভাড়াকৃত বাসা ব্যবহার করে থাকে। সেখানে আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করা হতো। এছাড়া, অনলাইনেও প্রতারণা করে তারা। গ্রেপ্তারকৃতরা নিজেদের সেনা ও পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবেও পরিচয় দিতো।

কিছুদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক বিউটি ব্লগারের সঙ্গে পরিচয় হয় সাদমানের। গত ১০ জানুয়ারি রাজধানীর ভাটারায় এক রেস্তোরাঁর সামনে তাদের সাক্ষাৎ হয়। সারপ্রাইজ দেওয়ার কথা বলে তাকে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ভাড়া বাসায় নিয়ে যায় সাদমান। সেখানে ইশতিয়াক, নিরা ও রিশু তাকে মারধর ও যৌন নিপীড়ন করার পাশাপাশি ভিডিও ধারণ করে। এ সময় তারা মোবাইল ফোন, স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয় এবং ১ লাখ টাকা দাবি করে। তারা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে ভয়ও দেখায়। পরে বিউটি ব্লগারকে থানায় নিয়ে যাওয়ার কথা বলে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ঘুরিয়ে রামপুরায় নামিয়ে দেয়।

গ্রেপ্তারকৃত ইশতিয়াকের বিরুদ্ধে রাজধানীর দুটি ভিন্ন থানায় দুটি মামলা আছে। এর আগে বিভিন্ন মামলায় সে কারাভোগ করেছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে র‌্যাবের মুখপাত্র জানান, ভুক্তভোগী ওই বিউটি ব্লগার রাজধানীর ভাটারা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার পর ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব।

মাকসুদ/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়