ঢাকা     বুধবার   ২৫ মে ২০২২ ||  জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৯ ||  ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩

প্রশ্ন ফাঁস চক্রের ৬ সদস্য কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:২০, ২৫ জানুয়ারি ২০২২  
প্রশ্ন ফাঁস চক্রের ৬ সদস্য কারাগারে

সরকারি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস চক্রের ছয় সদস্যকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। তারা হলো—বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুবা নাসরীন রুপা, আল আমিন, আজাদ রনি, রাকিবুল হাসান, নাহিদ হাসান ও রাজু আহম্মেদ।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলাম তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ২১ জানুয়ারি দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত রাজধানীর মিরপুর, কাকরাইল ও তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকায় অভিযান চালিয়ে উল্লিখিত ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ইয়ার ডিভাইস ছয়টি, মোবাইল সিম হোল্ডার ছয়টি, ব্যাংকের চেক পাঁচটি, নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প সাতটি, স্মার্ট ফোন ১০টি, ফিচার ফোন ছয়টি, প্রবেশপত্র ১৮টি ও চলমান পরীক্ষার ফাঁস হওয়া প্রশ্নপত্র তিনটি সেট জব্দ করা হয়।

পরদিন ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়। আদালত প্রত্যেকের দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন।

মঙ্গলবার রিমান্ড শেষে আসামিদের রমনা থানায় দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানোর আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের উপ-পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মোহাম্মদ আলী। আদালত তাদের কারাগারে পাঠিয়ে আগামী ৩০ জানুয়ারি গ্রেপ্তার দেখানোর বিষয়ে শুনানির তারিখ ধার্য করেন।

আদালতে রমনা থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক নিজাম উদ্দিন ফকির এসব তথ্য জানিয়েছেন।

প্রতিরক্ষা মহাহিসাব নিরীক্ষকের কার্যালয়ের অধীন ডিফেন্স ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টের ৫৫০টি অডিটর পদে নিয়োগের জন্য ২১ জানুয়ারি বেলা ৩টা থেকে বিকেল সোয়া ৪টা পর্যন্ত ৭০ নাম্বারের এমসিকিউ পরীক্ষা হয়। ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পরীক্ষাকেন্দ্র ছিল। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে তথ্য ছিল—কিছু ব্যক্তি ইলেকট্রনিক ডিভাইস ও মোবাইল অ্যাপস ব্যবহার এবং ব্যক্তি পরিবর্তন করে প্রশ্নপত্র ফাঁস, উত্তর সরবরাহসহ অসদুপায় অবলম্বন করতে পারে। এ তথ্যের ভিত্তিতেই তাদের গ্রেপ্তার করে ডিবি।

মামুন/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়