ঢাকা     সোমবার   ১০ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭ ||  ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

করোনায় গলার অস্বস্তি কমাতে গার্গল করবেন যেভাবে

এস এম গল্প ইকবাল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৬:৪০, ৮ জুলাই ২০২০  
করোনায় গলার অস্বস্তি কমাতে গার্গল করবেন যেভাবে

জীবাণু ধ্বংস ও গলার অস্বস্তি উপশমের একটি সহজ পদ্ধতি হলো গার্গল (কুলকুচা)। কোভিড-১৯ এর অন্যতম উপসর্গ হলো গলায় অস্বস্তিকর অনুভূতি বা ব্যথা।

বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা রোগী গার্গল করলে গলার অস্বস্তি উপশমের পাশাপাশি ভাইরাসের সংখ্যাও কমতে পারে। এছাড়া যারা এখনো করোনায় আক্রান্ত হননি তারাও নিয়মিত গার্গল করলে সংক্রমণটি প্রতিরোধ হতে পারে। গার্গলিংয়ের মূল উপকরণ হলো কুসুম গরম পানি। এর সঙ্গে অন্য উপকরণ মিশিয়ে এটাকে আরো কার্যকর করা হয়। এখানে যেসব গার্গল গলার অস্বস্তি দূর করতে পারে তা উল্লেখ করা হলো।

লবণ ও পানি: সবচেয়ে পরিচিত গার্গল হলো লবণ পানির কুলকুচা। এক মগ (কফি মগ) কুসুম গরম পানিতে এক চা-চামচের এক-চতুর্থাংশ লবণ মিশিয়ে কুলকুচা করতে পারেন। ঠান্ডা পানির কুলকুচা তেমন কার্যকর নয়। জীবাণুনাশক শক্তি বাড়াতে এর সঙ্গে লিস্টেরিন মেশাতে পারেন। এই সল্যুশন গলার জ্বালাপোড়া বা ব্যথা প্রশমিত করবে ও ক্ষতিগ্রস্ত শ্লৈষ্মিক ঝিল্লির নিরাময় দ্রুত করবে।

লেবু ও পানি: গলার অস্বস্তি প্রশমন করতে এক মগ কুসুম গরম পানিতে এক চা-চামচ লেবুর রস মিশিয়ে কুলকুচা করতে পারেন। এই সল্যুশন গলার স্ফীত টিস্যুকে সংকুচিত করবে ও জীবাণুর বিরুদ্ধে প্রতিকূল পরিবেশ সৃষ্টি করবে।

আদা, মধু, লেবু ও পানি: গলার অস্বস্তি প্রশমনে একটি অধিক কার্যকর গার্গল হচ্ছে আদার গুড়া, মধু, লেবুর রস ও পানির কুলকুচা। এক মগ কুসুম গরম পানিতে এক চা-চামচ আদার গুঁড়া, এক চামচ মধু ও আধ চামচ লেবুর রস মিশিয়ে কুলকুচা করুন। মধু গলাতে একটি আরামদায়ক প্রলেপ সৃষ্টি করবে। এতে ব্যাকটেরিয়া বিরোধী উপাদানও রয়েছে।

হট সস ও পানি: ঝাল মরিচের ক্যাপসাইসিন ব্যথা ও প্রদাহ কমিয়ে থাকে। একারণে ঝাল মরিচের গুঁড়া অথবা হট সস পানিতে মিশিয়ে কুলকুচা করলে গলার অস্বস্তিকর অনুভূতি চলে যাবে। এই সল্যুশন তৈরি করতে এক মগ কুসুম পানিতে এক চা-চামচের এক-চতুর্থাংশ ঝাল মরিচের গুঁড়া অথবা আধ চা-চামচ হট সস মেশাতে পারেন। এতে প্রথমদিকে জ্বালাপোড়া করবে।

হলুদ ও পানি: হলুদে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট রয়েছে। চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা মনে করেন, এই মসলাতে কিছু মারাত্মক রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করার মতো ক্ষমতা রয়েছে। গলার অস্বস্তি দূর করতে এক মগ কুসুম গরম পানিতে আধ চা-চামচ হলুদের গুঁড়া ও আধ চা-চামচ লবণ মিশিয়ে কার্যকর সল্যুশন তৈরি করতে পারেন।

লবঙ্গ ও পানি: লবঙ্গে জীবাণু ও প্রদাহ বিরোধী উপাদান রয়েছে, যা গলার অস্বস্তি প্রশমিত করতে পারে। তিনটি লবঙ্গকে গুঁড়া করে এক মগ পানিতে মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন। এরপর এই সল্যুশন কুসুম গরম হয়ে আসলে কুলকুচা করুন।

টমেটো ও পানি: টমেটোর লাইকোপিনে যে অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট প্রপার্টি রয়েছে তা দ্রুত গলার অস্বস্তি কমাতে পারে। আধ মগ কুসুম গরম পানিতে আধ মগ টমেটোর রস ও আধ চা-চামচ হট সস মিশিয়ে কুলকুচার জন্য একটি কার্যকর সল্যুশন তৈরি করতে পারেন।

 

ঢাকা/ফিরোজ

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়