Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ২১ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ৯ ১৪২৮ ||  ০৯ জিলক্বদ ১৪৪২

কলমাকান্দায় টিসিবি’র পণ্য থেকে ভোক্তারা বঞ্চিত 

নেত্রকোনা সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:৩৪, ৭ মে ২০২১  
কলমাকান্দায় টিসিবি’র পণ্য থেকে ভোক্তারা বঞ্চিত 

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় টিসিবি’র পণ্য পাচ্ছেন না সাধারণ জনগণ। উপজেলায় ডিলার থাকলেও টিসিবি’র পণ্য থেকে বঞ্চিত হয়েছেন ভোক্তারা।

পার্শ্ববর্তী উপজেলা দুর্গাপুরে প্রতি সপ্তাহে একদিন কম দামে টিসিবি’র পণ্য ক্রয় করতে পারলেও কলমাকান্দাবাসীরা পণ্য ক্রয়ের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এতে করে এই উপজেলার নিম্ন ও মধ্যম আয়ের লোকজনের মাঝে বিরাজ করছে চরম ক্ষোভ ও হতাশা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রমজান মাস উপলক্ষে সারাদেশের মতো নেত্রকোনা জেলাতে টিসিবির পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। ট্রাকে পণ্য বিক্রির সময় বিভিন্ন স্থানে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে পণ্য সংগ্রহ করতে লক্ষ্য করা গেছে। টিসিবি’র পক্ষ থেকে রমজান উপলক্ষে ১ এপ্রিল থেকে পণ্য বিক্রি কার্যক্রম শুরু হয়, যা আগামী ৬ মে পর্যন্ত চলমান রাখার কথা ছিল। তবে অদ্যাবধি পর্যন্ত টিসিবি’র পণ্য বিক্রি করতে কোনো গাড়ি উপজেলায় আসেনি।

শুক্রবার (৭ মে) খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কলমাকান্দায় ‘প্রাচুর্য এন্টারপ্রাইজ’ নামে টিসিবি’র ডিলার রয়েছে। এর স্বত্ত্বাধিকারী অমর দাস। তিনি উপজেলার পাগলা বাজার এলাকার বাসিন্দা কিন্তু বসবাস করেন নেত্রকোনা শহরে।

এ বিষয়ে কলমাকান্দা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. ফখরুল আলম খসরু জানান, বারবার ডিলারকে তাগিদ দেওয়ার পরেও এই রমজানে টিসিবি’র পণ্য নিয়ে কোনো গাড়ি উপজেলাতে আসেনি। পণ্য তুলে বাইরে বিক্রি করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ তার। 

এ নিয়ে ইউএনওকে বিষয়টি অবগত করা হলে তিনি জানান, ডিলারের বিরুদ্ধে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। কিন্তু রমজানে এখন পর্যন্ত টিসিবি’র কোনো পণ্য কলমাকান্দায় বিক্রি করতে দেখা যায়নি।

কলমাকান্দার ডিলার অমর দাস বলেন, ‘আগে ২০ টনের বেশি বরাদ্দ ছিল। গুদামে এনে পণ্য বিক্রি করতাম। এখন পণ্য বিক্রিতে ট্রাক ছাড়া বরাদ্দ দেয় না। আর কলমাকান্দার জন্য বরাদ্দ দেড় থেকে দুই টন। যা ট্রাক ভাড়া করে উপজেলাতে এনে বিক্রি করলে পোষানো যায় না। তিন দিনের বরাদ্দ একদিন দিলে পোষানো যেত। তাই পণ্যের জন্য চালান জমা দেইনি। এতে ডিলারশিপ থাকা বা না থাকা কর্তৃপক্ষের ইচ্ছা।’

কলমাকান্দার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সোহেল রানা বলেন, ‘টিসিবি’র পণ্য উপজেলাতে এনে বিক্রির করার জন্য ডিলারের সঙ্গে কথা হয়েছে। পণ্য না আনার বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।’

নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক (ডিসি) কাজি মো. আবদুর রহমান বলেন, ‘বিষয়টি খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

দেবল/বুলাকী

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়