ঢাকা, রবিবার, ২২ চৈত্র ১৪২৬, ০৫ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রথমবারের মতো কম্বোডিয়া সঙ্গে যৌথ কমিশন বৈঠকে ঢাকা

কূটনৈতিক প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০২-২৭ ৮:৪১:১৯ এএম     ||     আপডেট: ২০২০-০২-২৭ ৮:৪১:১৯ এএম

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ও কম্বোডিয়ার যৌথ কমিশনের বৈঠক (জয়েন্ট কনসালটেশন মিটিং) ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

দুদেশের মধ্যে প্রথম বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্মেলন হয়েছিল তিন বছর আগে। এবার যৌথ কমিশনের বৈঠকে ঢাকা-নমপেন বাণিজ্য সর্ম্পক আরো দৃঢ় হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বৈঠকে অংশ নিতে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আসিয়ান জোটভূক্ত দেশ কম্বোডিয়ার ২৭ সদস্যের সরকারি প্রতিনিধিদল এরই মধ্যে ঢাকায় এসেছেন। প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন দেশটির কম্বোডিয়ার পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সহযোগিতা বিষয়ক মন্ত্রী মিজ ইট সোফিয়া।

জানা গেছে, স্মরণকালের সবচেয়ে বড় কম্বোডিয়ান প্রতিনিধি দল ঢাকায় এসেছে। দেশটির প্রতিনিধি দলে পররাষ্ট্র, প্রতিরক্ষা, পরিকল্পনা, পোস্টাল অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন, কৃষি, বন ও মৎস শিকার, সংস্কৃতি, ট্যুরিজম, শ্রম ও কারিগরি প্রশিক্ষণ ও বেসামিরিক বিমান মন্ত্রণালয় এবং নমপেন ক্যাপিটাল হলের প্রতিনিধি রয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনায় দুদেশের মধ্যে যৌথ কমিশনের বৈঠক ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে গুরুত্ব পাবে প্রতিরক্ষা, কৃষি, পরিবেশ, মৎস, বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতে পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো।

২০১৪ সালে কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা সফরের ফিরতি সফর হিসেবে ২০১৭ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নমপেন সফর করেন। ওই সফরে দুই দেশের মধ্যকার রাজনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্ক জোরদারে ১১ চুক্তি ও সমঝোতা সই হয়। যার মধ্যে ছিল- যৌথ বাণিজ্যিক কাউন্সিল গঠন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য বাস্তবায়নে পরস্পরিক সহযোগিতা, শ্রম ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে সহযোগিতা, পর্যটন ক্ষেত্রে সহযোগিতা, যুদ্ধের ইতিহাস, স্মৃতিস্তম্ভ এবং স্মৃতিচিহ্ন সংরক্ষণে পারস্পরিক সহযোগিতা, মৎস্য ও অ্যাকুয়াকালচার এবং বিনিয়োগ প্রসার। এছাড়া দুই দেশের শীর্ষ বাণিজ্যিক সংগঠনের মধ্যে সহযোগিতা সংক্রান্ত চুক্তি এবং বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ এবং রয়্যাল একাডেমি অব কম্বোডিয়ার মধ্যে একাডেমিক পর্যায়ে সহযোগিতা বিষয়ক সমঝোতা হয়েছিল সেই সফরে।

মিয়ানমারের ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশি বৌদ্ধ প্রধান কম্বোডিয়ার শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সেই সময়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হয়েছিল। যেখানে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফেরানোর বিষয়ে আলোচনা হয়।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, সরকার প্রধানের নমপেন সফরে বাংলাদেশ-কম্বোডিয়া সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছায়। সেই সময়ে যেসব বিষয়ে সমঝোতা বা সিদ্ধান্ত হয়েছিল, আজ অনুষ্ঠিতব্য বৈঠকে তা নিয়ে বিস্তৃত আলোচনা হবে। আর এ জন্যই কম্বোডিয়ার বিভিন্ন সেক্টরের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিনিধিরা ঢাকা এসেছেন।

 

ঢাকা/হাসান/বুলাকী