ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৯ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

দরিদ্র শ্রমজীবীদের জন্য পর্যাপ্ত বরাদ্দ চায় ক্ষেতমজুর সমিতি

বিশেষ প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৩-৩০ ৯:২৮:৫৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৩-৩০ ৯:২৮:৫৫ পিএম

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে জনসাধারণকে ঘরে থাকতে বলছে সরকার। এতে বিপাকে পড়েছেন দরিদ্র শ্রমজীবী মানুষ। তাদের খাদ্য সহায়তা দিতে পর্যাপ্ত বরাদ্দ দেওয়ার দাবি জানিয়েছে ‘বাংলাদেশ ক্ষেতমজুর সমিতি’।

সোমবার (৩০ মার্চ) ক্ষেতমজুর সমিতির সভাপতি ডা. ফজলুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেন রেজা এক যৌথ বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার উদ্যোগ নিয়েছে। ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়ে সরকার জনগণকে নানা সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু প্রতিশ্রুতি পূরণের ক্ষেত্রে সীমাহীন ঘাটতি পরিলক্ষিত হচ্ছে। এর মূল ভুক্তভোগী শ্রমজীবী মানুষ।

ক্ষেতমজুর সমিতির নেতারা বলেন, ‘বাংলাদেশে ‘‘দিন আনে দিন খায়’’ এরকম শ্রমজীবী মানুষের সংখ্যা বেশি। সরকারের সিদ্ধান্তের কারণে আজ ভয়াবহ কষ্টে জীবনযাপন করছেন শহর থেকে গ্রামে ফেরা দরিদ্র শ্রমজীবী মানুষগুলো ও তাদের পরিবার।

তারা বলেন, ‘শহরের বিশাল সংখ্যক শ্রমজীবী মানুষ গ্রামের বাড়িতে ফিরেছেন। এই কর্মহীন মানুষদের বাঁচাতে সরকার সারা দেশে যে বরাদ্দ দিয়েছে তা শুধু হাস্যকর নয়, অমানবিক। পর্যাপ্ত খাদ্যের মজুদ আছে বলে সরকার দাবি করেছিল। অবিলম্বে সব দরিদ্র মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়ে তা প্রমাণ করতে হবে। প্রয়োজনে নতুন করে তালিকা তৈরি করে বরাদ্দ দিতে হবে এবং তা বণ্টন করতে হবে।’

বরাদ্দ লুটপাটের ইতিহাস স্মরণ করিয়ে দিয়ে মানবিক দায়িত্ব পালনে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছে ক্ষেতমজুর সমিতি।


ঢাকা/হাসনাত/রফিক