ঢাকা     শনিবার   ০৮ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৪ ১৪২৭ ||  ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ মঙ্গলবার  

|| রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:১৯, ৬ জুলাই ২০২০  

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চ ডুবিতে প্রাণহানির ঘটনায় নৌপরিহন মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের বেধে দেওয়া সাত দিনের সময় শেষে সোমবার রাতে এই প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়।

এদিকে, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার (৭ জুলাই) আনুষ্ঠানিকভাবে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করবে। দুপুর ১টায় সচিবালয়ের মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী প্রতিবেদনটি প্রকাশ করবেন।

সোমবার (৬ জুলাই) রাতে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম খান রাইজিংবিডিকে এ তথ্য জানান।

গত ২৯ জুন লঞ্চ দুর্ঘটনার দিনই সাত সদস্যের উচ্চপর্যায়ের ওই তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়।  কমিটিতে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব (উন্নয়ন) রফিকুল ইসলাম খানকে আহ্বায়ক এবং বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার (বিআইডব্লিউটিএ) পরিচালক (নৌ—নিরাপত্তা) রফিকুল ইসলামকে সদস্য সচিব করা হয়।

কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে দুর্ঘটনার কারণ উদঘাটন, দুর্ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তি/সংস্থাকে শনাক্তকরণ এবং দুর্ঘটনা প্রতিরোধে করণীয় উল্লেখ করে সুনির্দিষ্ট সুপারিশ সম্বলিত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছিল।  গত সাত দিন তদন্ত শেষ করে সোমবার রাত ৯টায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন জমা দেয় তদন্ত কমিটি।

গত ২৯ জুন বুড়িগঙ্গায় মর্নিং বার্ড লঞ্চ ডুবে যায়।  এ ঘটনায় মারা গেছেন ৩৪ জন।  ওইদিন রাতেই নৌপুলিশ সদরঘাট থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ শামসুল আলম বাদি হয়ে লঞ্চডুবির ঘটনায় অবহেলাজনিত হত্যার অভিযোগ এনে ৭ জনের বিরুদ্ধে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় মামলা করেন।  আসামিরা হলেন- এমভি ময়ূর-২ এর মালিক মোসাদ্দেক হানিফ সোয়াদ, লঞ্চের মাস্টার আবুল বাশার মোল্লা ও জাকির হোসেন, চালক শিপন হাওলাদার ও শাকিল হোসেন এবং সুকানি নাসির মৃধা ও মো. হৃদয়।

 

আসাদ/সাইফ

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়