ঢাকা     রোববার   ০৯ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৫ ১৪২৭ ||  ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

‘মানুষের আনন্দ দেখে আনন্দিত হই’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৪৬, ১ আগস্ট ২০২০  
দায়িত্বপালন করছেন এক ট্রাফিক সদস্য

দায়িত্বপালন করছেন এক ট্রাফিক সদস্য


ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করতে অনেকেই গ্রামে প্রিয়জনের কাছে গেছেন, কেউ বা আবার নিজ বাসায় থেকে পরিাবরের সঙ্গে ঈদ উদযাপন করছেন। কিন্তু ব্যতিক্রম ট্রাফিক পুলিশ। ঈদের দিন ভোর থেকেই রাজধানীর সড়কে অতন্দ্র প্রহরীর মতো দায়িত্ব পালন করছেন।

গুলিস্তান সিগন্যালে কথা হয় দায়িত্বরত ট্রাফিক সোলোয়মানের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘রাস্তার মানুষের ঈদ আনন্দ দেখে আমরা আনন্দিত হই। ভোর থেকেই সেভাবেই ঈদ করছি। নিজের আনন্দ ত্যাগের মাধ্যমে মানুষকে যেন আনন্দিত করতে পারি সে চেষ্টাই করে যাচ্ছি।’

ঈদের দিনে ডিউটির বিষয়ে ফার্মগেটে দায়িত্বরত ট্রাফিক সদস্য মফিজুর রহমান বলেন, ‘মুসলমান হিসেবে সবচেয়ে আনন্দের দিন ঈদ। পরিবারের সবার সঙ্গে ঈদ করতে পারার আনন্দ ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। তবে দেশসেবার শপথ নিয়েই এ পেশায় আসা। এ কারণে দেশের জনগণের জন্য নিজের আনন্দ উপেক্ষিত থাকলেও দুঃখের কিছু নেই।’

সরেজমিন জানা গেছে, ঈদের দিন হওয়ায় রাজধানীর সব জায়গায় ট্রাফিক পুলিশ না থাকলেও গুরুত্বপূর্ণ সড়ক বা মোড়ে তারা যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করছিলেন। তবে ঈদের দিন তাদের ডিউটিতে একটু ব্যতিক্রম থাকে। অর্থ্যাৎ ফুল ডিউটি থাকে না। পালা করে দায়িত্ব পালন করে সবাই। সব পুলিশের জন্য পোলাও রান্না করা হয়। দুপুরের পর তাদের জন্য রাজারবাগে খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আবার অনেক সময় ডিউটি স্পটেও খাবার দেওয়া হচ্ছে। 

ট্রাফিক পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আব্দুর রাজ্জাক রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘অন্যান্য দিনের মতোই ঈদের দিনেও আমাদের ডিউটি থাকে। তবে শিফটিং ডিউটি। ফলে দিনের একটা সময় পরিবারের সঙ্গে ঈদ পালন করা হয়। চাঁদরাত পর্যন্ত আমাদের কষ্টটা একটু বেশি হয়। কারণ নগরে অতিমাত্রায় যানজট থাকে।


 

ঢাকা/মাকসুদ/এসএম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়