RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     শুক্রবার   ৩০ অক্টোবর ২০২০ ||  কার্তিক ১৫ ১৪২৭ ||  ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

একটি টিকিটের আশায়..

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৫৩, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৩:১৪, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

একটি টিকিটের জন্য গত ৫ দিন ধরে সৌদি এয়ারলাইন্সের অফিসের সামনে এসে দাঁড়িয়ে থাকছি। কিন্তু টোকেন বা টিকিট কিছুরই দেখা পাচ্ছি না। কেউ কোনো সঠিক তথ্য দিয়ে সাহায্য করছে না।

বলছিলেন রাজধানীর কারওয়ান বাজারের সৌদি এয়ারলাইন্স অফিসের সামনে টিকিটের অপেক্ষায় থাকা  নোয়াখালীর মোহাম্মদ আউয়াল হোসেন।

তিনি বলেন- একবার সৌদি দূতাবাসে দৌড়াচ্ছি, আবার এয়ারলাইন্সের অফিসে দৌড়াচ্ছি। এদিকে ভিসার মেয়াদও ৩০ তারিখ শেষ হবে। কি করবো এখন সেটাই ভেবে পাচ্ছিনা।

তিনি প্রশ্ন করেন, আমরা প্রবাসীরা দেশকে হাজার হাজার কোটি টাকা রেমিট্যান্স এনে দেই আর আমাদের আজ কেন এমন ভোগান্তির মুখে পড়তে হচ্ছে?

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দেশে এসে আটকে পড়া সৌদি প্রবাসীরা গত কয়েকদিনের মতো সোমবারও (২৮ সেপ্টেম্বর) সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকিটের জন্য ভিড় করেছেন কারওয়ান বাজারে। কবে টিকিট দেওয়া হবে তা নিয়ে চরম অনিশ্চয়তায় রয়েছেন প্রবাসীরা।

প্রবাসী মোহাম্মদ আউয়াল হোসেন বলেন, গত ৫ দিন ধরে ফজরের নামাজ পড়েই এখানে এসে দাঁড়িয়ে থাকছি এই ভেবে, যেন টোকেন দেওয়া শুরু করলে আগে পাই। কিন্তু টোকেনতো দিচ্ছেই না। আবার ভিসার মেয়াদ কিভাবে বাড়াতে হবে সেই তথ্যও কেউ বলছে না।

তিনি বলেন, আমি আজ (সোমবার) সকালে একটি এজেন্সিতে খোঁজ নিয়েছিলাম ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর জন্য কিন্তু সেখান থেকে বলা হয়- তারা নাকি কোনো তালিকাই পায়নি। তাই তারা কাজ করতে পারছে না। এখন তাদের কাছে সরকার বা সংশ্লিস্ট কেউ তালিকা পাঠালে তারা ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর কাজ শুরু করবে।

বিড়ম্বনায় পড়া আরেক প্রবাসী মোহাম্মদ বিল্লাল হোসেন বলেন, গত ২০ বছর ধরে সৌদিতে আছি। আমরা প্রবাসীরা দেশের জন্য কতো কষ্ট করছি সেটা আপনারা সবাই জানেন। তাহলে কেন আমাদের আজ টিকিটের জন্য রাস্তায় রাস্তায় থাকতে হচ্ছে। কেন আমাদের সরকার সাহায্য  করছে না? আমরা এতো কিছু বুঝিনা, আমাদের দাবি একটাই- আমরা সৌদি আরবে আবার ফিরে যেতে চাই। তাই সরকারের পক্ষ থেকে সেই ব্যবস্থা করার আহবান জানাচ্ছি।

সোমবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ভোর থেকে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে সৌদি এয়ারলাইন্স কার্যালয়ের সামনে জড়ো হয়েছেন হাজার হাজার প্রবাসী।

প্রবাসীদের অভিযোগ, আমাদের নিশ্চিত করে কেউ কিছুই বলছে না। আমরা জানতে চাই কবে টিকিট দেবেন তারা। আর এজেন্সির কাছে গেলেও তারা ভালো করে কিছুই বলছেন না। আবার শুনেছি কিছু কিছু এজেন্সি নাকি বাড়তি টাকা চাচ্ছে ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর জন্য। তবে এটা আমার সাথে ঘটেনি। আমার এক প্রবাসী ভাই এমন কথা বলেছেন।

জানা গেছে, আজ (সোমবার) ১৯০১ থেকে ২৩০০ সিরিয়ালের টোকেনধারীদের টিকিট দেওয়া হবে। এই সিদ্ধান্ত আগেভাগে জানানো হলেও আরো অনেকেই জড়ো হয়েছেন সৌদি এয়ারলাইন্সের অফিসের সামনে।

সৌদি এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগামী ৪ অক্টোবর থেকে দেওয়া হবে নতুন টোকেন। এছাড়া ভিসা নবায়ন কার্যক্রম শুরু করবে সৌদি দূতাবাস।

করোনা মহামারির কারণে বিমান যোগাযোগ দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল। এই সময়ে ছুটিতে দেশে এসে আটকা পড়েন প্রায় দুই লাখ প্রবাসী কর্মী। তাদের মধ্যে প্রায় ৮০ হাজার সৌদিপ্রবাসী ফিরতি টিকিট নিয়ে দেশে এসেছেন। কিন্তু করোনায় আটকে যান। তিন দফায় সাত মাস তাদের ভিসা ও আকামার মেয়াদ বাড়ায় সৌদি সরকার। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর আকামার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও সেই মেয়াদ ২৪ দিন বাড়িয়েছে সৌদি। ভিসা ও কাজে ফেরার সময়সীমা (এক্সিট রি-অ্যান্ট্রি) বাড়াতে সম্মত হয়েছে রিয়াদ।

ঢাকা/হাসিবুল/টিপু

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়