Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৩ এপ্রিল ২০২১ ||  চৈত্র ৩০ ১৪২৭ ||  ২৮ শা'বান ১৪৪২

গ্রামীণ উন্নয়নে কৃষির উন্নতির প্রয়োজন: কৃষিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:১০, ৬ মার্চ ২০২১   আপডেট: ১৯:১২, ৬ মার্চ ২০২১
গ্রামীণ উন্নয়নে কৃষির উন্নতির প্রয়োজন: কৃষিমন্ত্রী

গ্রামের মানুষের জীবনমানকে উন্নত করতে চাইলে কৃষির উন্নতি প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। 

শনিবার (৬ মার্চ) মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় এক অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী এ মন্তব্য করেছেন। হোসেন্দী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭৫ বছর পূর্তি উৎসব ও পুনমির্লনী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। 

ড. রাজ্জাক বলেন, গ্রামীণ অর্থনীতি এখনও কৃষিভিত্তিক। তাই গ্রামের মানুষের জীবনমান উন্নত করতে চাইলে কৃষির উন্নতি করতে হবে। কৃষির বাণিজ্যিকীকরণ ও লাভজনক করতে পারলে গ্রামের মানুষের আয় বাড়বে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে এবং জীবনযাত্রার মান উন্নত হবে। অন্যদিকে অর্থনীতিতেও তা বিরাট ভূমিকা রাখবে। 

তিনি বলেন, গ্রামে জন্ম নিয়ে ও পড়াশুনা করে, বড় হয়ে আজকে যারা উচ্চ পদে চাকরি করছি বা ব্যবসাসহ অন্যান্য পেশায় সফল হয়েছি- তাদের নিজেদের শেকড় ভুলে গেলে চলবে না। নিজেদের গ্রামকে আলোকিত করতে হবে, গ্রামের উন্নয়নে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, বাবা-মার কাছে বেশি সম্পদ রেখে যাওয়ার প্রত্যাশা করা উচিত নয়। বাবা-মারও সন্তানদের জন্য বেশি অর্থবিত্ত রেখে যাওয়া উচিত নয়। জীবনে অর্থবিত্তের প্রয়োজন আছে, কিন্তু লোভ ও প্রয়োজনের মধ্যে সীমারেখা থাকা দরকার। 

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মাজহারুল হক তপনের সভাপতিত্বে মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য মৃণাল কান্তি দাস, সাবেক আইজিপি (প্রিজন) মো. লিয়াকত আলী খান, প্রাক্তন ছাত্র স্কোয়াড্রন লিডার (অবসরপ্রাপ্ত) গোলাম কিবরিয়া আব্বাসীসহ আরও অনেকে ছিলেন। 
 

  ঢাকা/আসাদ/এসএন 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়

শিরোনাম

Bulletলকডাউন: ১৪-২১ এপ্রিল। যা যা চলবে: ১. বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল বন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিস। ২. পণ্য পরিবহন, উৎপাদন ব্যবস্থা ও জরুরি সেবাদানের ক্ষেত্রে এ আদেশ প্রযোজ্য হবে না ৩. শিল্প-কারখানা ৪. আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিসেবা, যেমন, কৃষি উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক, কৃষি যন্ত্রপাতি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও খাদ্যদ্রব্য পরিবহন, ত্রাণ বিতরণ, স্বাস্থ্যসেবা, কোভিড-১৯ টিকা প্রদান, বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস/জ্বালানি, ফায়ার সার্ভিস, বন্দরগুলোর (স্থল, নদী ও সমুদ্রবন্দর) কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া), বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবাসহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিসসমূহ, তাদের কর্মচারী ও যানবাহন এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বর্হিভূত থাকবে। ৫. ওষুধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়, চিকিৎসা সেবা, মৃতদেহ দাফন/সৎকার ৬. খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁয় দুপুর ১২টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা এবং রাত ১২টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কেবল খাদ্য বিক্রয়/সরবরাহ করা যাবে। ৭. কাঁচাবাজার এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে || যা যা বন্ধ থাকবে: ১. সব সরকারি, আধাসরকারি, সায়ত্ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিস, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ২. সব ধরনের পরিবহন (সড়ক, নৌ, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট) বন্ধ থাকবে ৩. শপিংমলসহ অন্যান্য দোকান বন্ধ থাকবে