Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৮ ||  ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

মাহে রমজানের হক আদায় করে রোজা রাখার আহ্বান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৫৮, ১৬ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ১৫:২৪, ১৬ এপ্রিল ২০২১
মাহে রমজানের হক আদায় করে রোজা রাখার আহ্বান

ছবিটি ১৬ এপ্রিল বায়তুল মোকাররম মসজিদ থেকে তোলা (ছবি: মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন)

মাহে রমজানের হক আদায় করে রোজা রাখার মাধ‌্যমে গুনাহমুক্ত জীবনযাপন করার আহ্বান জানিয়েছেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা ম‌হিউ‌দ্দিন কা‌সে‌মি।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) পবিত্র রমজানের প্রথম জুমা পূর্ব খুতবায় তিনি এ আহ্বান জানান। এ সময় তিনি স্বাস্থ‌্যবিধি মেনে নামাজ আদায়ের আহ্বান জানিয়ে করোনাভাইরাস মহামারি থেকে মুক্তির জন‌্য আল্লাহর সাহায‌্য কামনা করেন এবং ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের রোজা রেখে ইফতারের পূর্বে দোয়া করার আহ্বান জানান। 

পবিত্র হাদিসের উদ্বৃতি দিয়ে মাওলানা ম‌হিউ‌দ্দিন কা‌সে‌মি বলেন, আমাদের সিয়াম সাধনা যেন আল্লাহর সন্তুষ্টির জন‌্য হয়। ইমানের সঙ্গে যে ব‌্যক্তি সাওয়াবের আশায় আল্লাহর সন্তুষ্টির জন‌্য মাহে রমজানে রোজা রাখবেন ওই ব‌্যক্তির বিগত জীবনের সব গুনাহ ক্ষমা করে দিবেন। 

তিনি বলেন, মাহে রমজানে হক আদায় করে আমাদের রোজা রাখতে হবে। রোজার হক হচ্ছে গুনাহমুক্ত জীবনযাপন করা। কিন্তু রোজা রাখছেন গুনাহ করছেন, সুদ খাচ্ছেন এই রোজা কোনো কাজে আসবে না।  পরকালে ঢাল হবে না, বরং তা জাহান্নামে নিয়ে যাবে।  আল্লাহর রাসুল বলেছেন, রোজা হচ্ছে ঢাল স্বরুপ। এই রোজা পরকালে বান্দাহকে জাহান্নামের আগুন থেকে মুক্তি দেবেন। একমাত্র রোজার প্রতিদান আল্লাহপাক স্বয়ং নিজ হাতে দিবেন। তাই রোজার রেখে মিথ‌্য পরিহার করতে হবে, গুনাহমুক্ত জীবনযাপন করতে হবে বলেন মুফতি মিজান। 

করোনা মহামারি থেকে মুক্তি পেতে মুসল্লিদের তওবা করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, এক বছরের বেশি সময় ধরে করোনা মহামারি সারা বিশ্বকে বিপর্যস্ত করে ফেলেছে।  কখন এই মহামারি থেকে মুক্তি পাবো কেউ জানে না। বিপদমুক্ত হতে হলে খালেস নিয়তে আমাদের তওবা করতে হবে। আর রোজা রেখে তওবা করতে পারলে আল্লাহ আমাদের তওবা কবুল করবেন।  বিপদ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। 

মহিউদ্দিন কাসেমি বলেন, মহামারি থেকে বাঁচতে সরকারের দেওয়া স্বাস্থ‌্যবিধি মেনে চলতে হবে। আজকে প্রথম জুমায় মুসল্লির ঢল নামার কথা। কিন্তু অনেকেই মসজিদে আসতে পারছেন না। অনেকেই অসুস্থ, অনেকেই মারা গেছেন। 

নঈমুদ্দীন/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়