Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১ ||  আষাঢ় ১ ১৪২৮ ||  ০৩ জিলক্বদ ১৪৪২

অ্যাম্বুলেন্সে ঈদযাত্রী, ভাড়া ২ হাজার টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৩৮, ১২ মে ২০২১   আপডেট: ১৩:৪৮, ১২ মে ২০২১

রাজশাহীগামী যাত্রী মোহাম্মদ ইউসুফ হোসেন। তিনি বলেন, বাস চলছে না, কি করবো বাড়িতে যেতেই হবে।  ঈদের সময় যদি বাড়ি না যেতে পারি তাহলে কীভাবে হবে বলেন? তাই যেভাবেই হোক বাড়ি যাচ্ছি। তবে বাসে করে যখন রাজশাহী গিয়েছি তখন ভাড়া ছিল ৭০০ বা ৮০০ টাকা।  এখন অ্যাম্বুলেন্সে করে যেতে ভাড়া নেওয়া হচ্ছে দুই হাজার টাকা। 

মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে দেশের দূরপাল্লার বাস বন্ধ রয়েছে। এমনকি সরকার সাধারণ মানুষদের নির্দেশনা দিয়েছেন ঈদে কর্মস্থলেই অবস্থান করতে কিন্তু লকডাউনের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত রাজধানী ছেড়ে যাচ্ছে লাখ লাখ মানুষ।  যে যেভাবে পারছেন সেভাবে গ্রামে যাচ্ছেন ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে। 

বুধবার (১২ মে) রাজধানীর আমিনবাজার এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, হাজার হাজার মানুষের ভিড়। এই এলাকায় যাত্রীরা ট্রাকে করে বাড়ি যাচ্ছেন। এছাড়া অ্যাম্বুলেন্সে করেও যাত্রী নিতে দেখা গেছে। সরকারের কোনো নির্দেশনা মানছেন না তারা। 

কথা হয় অ্যাম্বুলেন্সের যাত্রী মোহাম্মদ ইউসুফ হোসেনের সঙ্গে। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ঈদের ছুটিতে বাড়ি যাচ্ছি।  করোনার মধ্যে ঢাকায় বসে কিছু করার নেই।

অ্যাম্বুলেন্সে করে কেন যাচ্ছেন আর ভাড়া কত নেওয়া হচ্ছে এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, বাস চলছে না। তাই যে যেভাবে পারছেন সেভাবেই যাচ্ছেন। আমিনবাজার এলাকায় এসে দেশি অ্যাম্বুলেন্সে করে মানুষ যাচ্ছেন। আবার অনেকেই ট্রাকে করে যাচ্ছেন। তবে ট্রাক থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে যাওয়াই ভালো। কিন্তু ভাড়া নেওয়া হচ্ছে অনেক বেশি।  ঢাকা থেকে রাজশাহী এসি বাসেও ভাড়া হচ্ছে ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা। কিন্তু আজ আমাদের জনপ্রতি নেওয়া হচ্ছে দুই হাজার টাকা। 

অ্যাম্বুলেন্স ড্রাইভার হাফিজ রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, বাস চলছে না। মানুষের চাপও অনেক বেশি।  তাই অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে বের হলাম।  কিছু বাড়তি টাকা যদি ইনকাম হয় সেই আশায়।

সরকারের নির্দেশনা না মেনে কেন যাত্রী নিচ্ছেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সরকারের কয়টা নির্দেশনা মানুষ এখন মেনে চলছে বলতে পারেন? এখন কেউ করোনার ভয়ে বাসায় বসে নেই।  নির্দেশনাও কেউ মানছে না।  তাই যাত্রী নিয়ে বিভিন্ন স্থানে যাচ্ছি। 

একই স্থানে আরও দেখা গেছে, মোটরসাইকেল, লেগুনা, অটোরিকশা, প্রাইভেটকারে করেও যাত্রী নেওয়া হচ্ছে।  তবে ভাড়া নেওয়া হচ্ছে আগের তুলনায় অনেক বেশি। 

হাসিবুল/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়