Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ১৪ জুন ২০২১ ||  জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮ ||  ০১ জিলক্বদ ১৪৪২

দূরপাল্লার পরিবহন চালুর দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:১৫, ১৪ মে ২০২১  
দূরপাল্লার পরিবহন চালুর দাবি

ফাইল ফটো

ঈদ উদযাপনে রাজধানী ছেড়ে যাওয়া মানুষদের রাজধানীতে ফেরত আনতে দূরপাল্লার পরিবহন চালুর দাবি জানিয়েছেন পরিবহন শ্রমিকরা। সরকার যদি এ দাবি না মানে, তাহলে কঠিন কর্মসূচির নেওয়ার আভাস দিয়েছেন তারা।

শুক্রবার (১৪ মে) রাজধানীর সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে দূরপাল্লার পরিবহন চালুর দাবি জানানো হয়।

অবস্থান কর্মসূচিতে পরিবহন শ্রমিক নেতা ও সাবেক নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, ‘ঈদের ছুটির পর রাজধানীমুখী যাত্রীদের দুর্ভোগ কমাতে কয়েক দিনের জন্য হলেও দূরপাল্লার পরিবহন চালু করা জরুরি। কারণ, যেভাবে মানুষ গ্রামে গেছেন, সেভাবে তারা আবার ফিরে আসবেন। তাদের ঘরে আটকে রাখা যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘গত কয়েক দিনে দেখা গেছে, সাত সিটের একটি মাইক্রোবাসে ১০ থেকে ১২ জন লোক নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ১০ সিটের স্পিডবোটে গিয়ে ২৬ জন লোক মারা গেল। যারা গ্রামে গেছে, তারা আবার ফিরে আসবে। তাই, দ্রুত দূরপাল্লার বাস চালু করা জরুরি।’

শাজাহান খান আরও বলেন, ‘যখন ইলিশ মাছ ধরা বন্ধ রাখা হয়, তখন জেলেদের এক মাসের খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়। কিন্তু পরিবহন যে এক মাস ৭ দিন বন্ধ, এ সময় তো কোনো খাদ্য সহায়তা আমরা পেলাম না। যারা গত বছর পেয়েছিল, তাদের মধ্যে কয়েকজন অনুদান পেয়েছেন। আমরা সরকারের সকল নির্দেশনা মেনে চলি। সরকারও আমাদের বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে দেখেছেন। আমরা সরকারের পাশে আছি, আগামীতেও থাকব। সরকার এবারও আমাদের বিষগুলো দেখবে বলে আশা করি।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘পরিবহন শ্রমিকরা আপনার সন্তানের মতো। তারা এখন খুব কষ্টে আছেন। তাদের জন্য কী করবেন, সেটা আপনিই ভালো জানেন। আমি আশা করব, আপনি সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন।’

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, ‘স্বাস্থ্যবিধি মেনে মোট আসনের অর্ধেক যাত্রী নিয়ে দূরপাল্লার পরিবহন চালুসহ পাঁচ দফা দাবিতে আমরা আজ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছি। আমরা চাই, সরকার আমাদের দাবি মেনে নেবে।’

তিনি বলেন, ‘শুরু থেকেই আমরা সরকারের কাছে পরিবহন চালুর দাবি জানিয়ে আসছি। কিন্তু করোনার কারণে তা বন্ধ রাখা হয়েছে। কিন্তু এই ঈদে যে পরিমাণে মানুষ ভোগান্তি নিয়ে বাড়ি গেছে, সেটা পরিবহন চালু থাকলে হয়তো হতো না। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই আমরা বাস চালাতাম। আমরা সরকারের কাছে পাঁচ দফা দাবি জানাবো। যদি আমাদের দাবি মেনে না নেয়, তাহলে আমরা পরবর্তী কর্মসূচি দেবো।’

ঢাকা/হাসিবুল/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়