Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১ ১৪২৮ ||  ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

‘হেফাজত ইস্যুতে কোনো প্রকৃত আলেমকে গ্রেপ্তার করা হয়নি’

সংসদ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৫৫, ১৫ জুন ২০২১  
‘হেফাজত ইস্যুতে কোনো প্রকৃত আলেমকে গ্রেপ্তার করা হয়নি’

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলেছেন, ‘হেফাজতে ইসলাম ইস্যুতে কোনো প্রকৃত আলেম ও বুজুর্গ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। আলেম নামধারী ক্ষমতালিপ্সু রাষ্ট্র ও সমাজবিরোধী ষড়যন্ত্রে জড়িত ব‌্যক্তিদের ফৌজদারি অপরাধে আইনের আওতায় আনা হয়েছে।’

মঙ্গলবার (১৫ জুন) জাতীয় সংসদ অধিবেশনে হজ ও ওমরা ব্যবস্থাপনা বিলের সংশোধনী প্রস্তাবের ওপর সংসদ সদস্যদের দেওয়া বক্তব্যের জবাব দেওয়ার সময় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বিলটি যাচাই কমিটিতে পাঠানো ও সংশোধনী প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদ ও রুমিন ফারহানা সাম্প্রতিক সময়ে আলেমদের গ্রেপ্তারের প্রসঙ্গ টেনে এর কঠোর সমালোচনা করেন। তাদের মুক্তিও দাবি করা হয় সংসদে।

এর জবাবে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু  ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ দেশে ইসলামের জন্য যা করছেন, তা সবাই জানেন। কোনো পর্যায়ে কোনো বুজুর্গ ব্যক্তি ও প্রকৃত আলেম গ্রেপ্তার হয়নি। কেবল আলেম নামধারী কিছু অর্থ ও ক্ষমতালিপ্সু ব্যক্তি, যারা বিভিন্ন ফৌজদারি অপরাধে জড়িত, যারা ধর্মের নামে রাষ্ট্র ও সমাজবিরোধী ষড়যন্ত্রমূলক কাজে জড়িত, তারাই আইনের আওতায় এসেছে। যদি অন্যায়ভাবে কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়ে থাকে, প্রধানমন্ত্রী তাৎক্ষণিকভাবে জানিয়ে দিয়েছেন, তাদের ছেড়ে দেওয়া হোক। ইতোমধ্যে বহু আলেমকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে যারা দোষী ব্যক্তি, তাদের বিরুদ্ধেই আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’

আইন সবার জন্য সমান, উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার সব বুজুর্গ আলেমসহ সর্বস্তরের মানুষের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। নিয়মতান্ত্রিকভাবে চলার জন্য যেটা প্রয়োজন, প্রধানমন্ত্রী সে ব‌্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।’

হারুন ও রুমিনের বক্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে জাতীয় পার্টির পীর ফজলুর রহমান বলেন, ‘ইসলামী স্কলারদের সম্মানন করি। কিন্তু, ওয়াজের নামে কিছু কিছু আলেম বিভ্রান্তি ছাড়াচ্ছে। করোনা নিয়ে, ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো হলো। মুসলমানদের করোনা হলে নাকি ইসলাম মিথ্যা হয়ে যাবে! এ সমস্ত আলেমদের থেকে সতর্ক থাকতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘সীমিত আকারে সবকিছু জায়েজ বলা যাবে না। সীমিত আকারে বিয়ে, সীমিত আকারে প্রেম, সীমিত আকারে ডেটিং—এগুলো করা যাবে না।’

জাতীয় পার্টির মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, ‘বিভিন্ন ওয়াজ ফেসবুকে শুনি—একটির সাথে আরেকটির মিল নেই। উনারা একজন আরেকজনকে প্রকৃত মুসলমান মনে করেন না। ওনাদের বক্তব্য অনুযায়ী, কেউই আসল মুসলমান না। এসব বক্তব্য শুনলে মানুষ বিভ্রান্ত হয়। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।’

আসাদ/রফিক

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়