ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৬ আগস্ট ২০২২ ||  ভাদ্র ১ ১৪২৯ ||  ১৬ মহরম ১৪৪৪

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল রুটে বাসভাড়া আরও বাড়ল

নিজস্ব প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:২৭, ১ জুলাই ২০২২  
দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল রুটে বাসভাড়া আরও বাড়ল

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক্সপ্রেসওয়ের টোল হিসাব করে পদ্মা সেতু হয়ে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল রুটে চলাচলকারী বাসের ভাড়া পুনর্নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। শুক্রবার (১ জুলাই) থেকে নতুন ভাড়া কার্যকর হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) রাতে বিআরটিএ’র পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) শীতাংশু শেখর বিশ্বাস স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে ১৫টি রুটের ভাড়া পুনর্নির্ধারণ করা হয়। এবার ৪০ ও ৫১ আসন বিশিষ্ট দুই ধরনের বাসের ভাড়া চূড়ান্ত করা হয়েছে।

এর আগে গত ৭ জুন রাজধানীর সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৩টি রুটে চলাচল করা বাসের ভাড়া চূড়ান্ত করেছিল বিআরটিএ। এর পর ২০ জুন হালনাগাদ দূরত্বের ভিত্তিতে ভাড়া পুনর্নির্ধারণ করা হয়।

ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে মাওয়া, ভাঙ্গা ও মাদারীপুর হয়ে বরিশালের দূরত্ব ১৫৬ কিলোমিটার, ভাড়া ৪৫৪ টাকা। এর আগে সায়েদাবাদ থেকে বরিশালের ভাড়া যথাক্রমে ৪১২ ও ৪২১ টাকা ধরা হয়েছিল।

এবার ভাড়া বেড়েছে টোল হিসাবের পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনায়। এর আগের দুবার বাসের শতভাগ আসন পূর্ণ ধরে টোলের টাকা ভাগ করা হয়েছিল। কিন্তু, নতুন হিসাবে বাসের মোট সিটের ৭০ শতাংশ (২৮ সিট) দিয়ে টোলের টাকাকে ভাগ করা হয়েছে।

এক্সপ্রেসওয়েতে ৪০ আসন বিশিষ্ট একটি বাসের টোল ৪৯৫ টাকা। ২৮ আসন পূর্ণ ধরলে যাত্রী প্রতি টোলের পরিমাণ দাঁড়ায় ১৭ টাকা ৬৭ পয়সা। এদিকে, পদ্মা সেতুতে ২ হাজারসহ ঢাকা-বরিশাল রুটে মোট টোল ২ হাজার ৬৯৫ টাকা। যাত্রীপ্রতি টোল ৯৬ টাকা ২৫ পয়সা।

পুনর্নির্ধারিত তালিকা অনুযায়ী, ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জের ভাড়া ৪২৩ টাকা, যা আগে ধরা হয়েছিল ৩৯২ টাকা। এছাড়া, নতুন তালিকায় ঢাকা থেকে খুলনার ভাড়া ৫৩৭ থেকে ৫৭৫ টাকা হয়েছে। এর মধ্যে টোল ১০০ টাকা। ঢাকা-শরীয়তপুর রুটের ভাড়া ২২৬ থেকে বেড়ে ২৫৭ টাকা হয়েছে।

এদিকে, পুনর্নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা অনুযায়ী, ঢাকা-পিরোজপুর ৫৮০, বাগেরহাট হয়ে ঢাকা-পিরোজপুর ৬১৯, ঢাকা-পটুয়াখালী ৫৬১, ঢাকা-মাদারীপুর ৩৪৪, ঢাকা-সাতক্ষীরা ৬৮৯, ঢাকা-ফরিদপুর ৩২৩, বাবুবাজার সেতু হয়ে শরীয়তপুর ২৫৭, ঢাকা-কুয়াকাটা ৭৬৭, কক্সবাজার থেকে বরিশাল ১ হাজার ৩৮৮, চট্টগ্রাম-খুলনা ১ হাজার ১৯২ এবং চট্টগ্রাম-বরগুনা ১ হাজার ২৮২ টাকা করা হয়েছে।

বিআরটিএ’র প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, এ বাস ভাড়ার সঙ্গে মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারের ভাড়া সংযুক্ত করা হয়নি। এ ফ্লাইওভার ব্যবহারকারী ৫১ আসনের বাসে যাত্রীপ্রতি ৬ টাকা ৭২ পয়সা ও ৪০ আসনের বাসে যাত্রীপ্রতি ৯ টাকা ভাড়া দিতে হবে।

হাসিবুল/রফিক

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়