ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

তারার মেলায় শুরু ওয়ালটন জাতীয় ক্রিকেট লিগ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-১০ ১০:৪৮:০৮ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-১০ ১:৫২:০১ পিএম

তামিম ইকবাল বেরিয়ে এলেন অতিথি ড্রেসিং রুম থেকে।  মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আসলেন স্বাগতিক ড্রেসিং রুম থেকে।  এক জনের গায়ে চট্টগ্রাম বিভাগের জার্সি, আরেকজনের ঢাকা মেট্রো।

চার বছরের অপেক্ষার অবসান। জাতীয় দলের এ দুই ক্রিকেটার দীর্ঘ চার বছর পর ফিরলেন ঘরোয়া বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেটের দেশের প্রধানতম টুর্নামেন্ট জাতীয় ক্রিকেট লিগে। তাদের দুজনের ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠল ঘরোয়া ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় মহাযজ্ঞ। শুধু তামিম ও মাহমুদউল্লাহই নন, জাতীয় দলের তারকা খেলোয়াড়রা প্রায় সকলেই খেলছেন জমজমাট এ প্রতিযোগীতায়। তারার মেলা বসেছে জাতীয় ক্রিকেট লিগে।

মুশফিক ফতুল্লায়, মুমিনুল মিরপুরে, রাজশাহীতে মোসাদ্দেক, খুলনাতে রুবেল হোসেন মাঠে নেমেছেন। মাঠে নামার কথা ছিল মুস্তাফিজুর রহমানেরও। কিন্তু শেষ মুহূর্তে মুস্তাফিজ ছিটকে যান।  টানা খেলার ওপর থাকায় মিরাজ পেয়েছেন ছুটি। তারা দুজন মাঠে নামলে ষোলকলা পূর্ণ হতো।

 

 

বৃহস্পতিবার ২১তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের উদ্বোধন করেন বিসিবির পরিচালক ও টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান গাজী গোলাম মুর্তজা, বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী, ওয়ালটন গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম ও অ্যাডিশনাল ডিরেক্টর মিলটন আহমেদ।

ধবধবে সাদা জার্সি সবার গায়ে।  বুকের ওপর বড় করে লিখা স্পন্সর প্রতিষ্ঠান ওয়ালটনের নাম।  তার ওপরে বিভাগের নাম।  বাঁপাশে স্পন্সরের লোগো, ডানপাশে বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার লোগো।  লিগে অংশগ্রহণ করছে আটটি দল। মোট খেলোয়াড় সংখ্যা ১১২। জাতীয় ক্রিকেট লিগে স্পন্সরশিপ বাদেও মাঠের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি করতে প্রতিটি দলের খেলোয়াড়, ম্যাচ অফিসিয়ালদের (আম্পায়ার, রেফারি) জার্সি প্রদান করছে ওয়ালটন। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সঙ্গে মিল রেখে এবার জার্সির পেছনে নাম ও জার্সি নম্বর যুক্ত করা হয়েছে।

চার বছর পর মিরপুরে ফিরল জাতীয় ক্রিকেট লিগের ম্যাচ। সবশেষ খেলা হয়েছিল ২০১৫ সালের অক্টোবরে। ওই ম্যাচে ছিলেন মাহমুদুল্লাহ। তার ঢাকা মেট্রোর প্রতিপক্ষ ছিল খুলনা বিভাগ।

 

 

চারটি ভেন্যুতে একযোগে শুরু হয়েছে জাতীয় লিগের খেলা।  মিরপুর শের-ই-বাংলায় মাঠে নেমেছে ঢাকা মেট্রো ও চট্টগ্রাম বিভাগ।  ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে রাজশাহী ও ঢাকা বিভাগ, খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে রংপুর ও খুলনা বিভাগ এবং রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে বরিশাল ও সিলেট মুখোমুখি হয়েছে।

এবারও যথারীতি ডাবল লিগ পদ্ধতিতে প্রতিটি দল নিজেদের টায়ারের অপর তিনটি দলের মুখোমুখি হবে। টায়ার টু এর চ্যাম্পিয়ন দল আগামী মৌসুমে টায়ার ওয়ানে উত্তীর্ণ হবে। আর টায়ার ওয়ানে পয়েন্ট তালিকায় তলানিতে থাকা দল টায়ার টুতে নেমে যাবে।

প্রথমবারের মতো লিগ শুরুর আগে উন্মোচন করা হয়েছে টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন ট্রফির। দেখার বিষয় কার হাতে উঠে আকর্ষণীয় এ ট্রফিটি।


ঢাকা/ইয়াসিন

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন