ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ কার্তিক ১৪২৬, ১৪ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ইমরুলের আক্ষেপের দিনে ব্যর্থ সৌম্য-মিথুন

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৮ ৬:০৮:৫৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-১৮ ৯:২৯:৫০ পিএম
অল্পের জন্য টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি পাননি ইমরুল কায়েস। ছবি: মিলটন আহমেদ

ডাবল সেঞ্চুরির পর সেঞ্চুরি- ইমরুল কায়েসের জন্য হতে পারত দুর্দান্ত কিছু। কিন্তু সেটা হয়নি অল্পের জন্য। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ৭ রানের জন্য সেঞ্চুরি না পাওয়ার আক্ষেপে পুড়েছেন, হয়েছেন রান আউট। ব্যর্থ হয়েছেন সৌম্য সরকার ও মোহাম্মদ মিথুন।

ইমরুল সেঞ্চুরি না পেলেও তার দল খুলনা বিভাগ রাজশাহীর বিপক্ষে লিড নেওয়ার পথে আছে। জাতীয় লিগের দ্বিতীয় দিন শেষে খুলনার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২২৭ রান। নুরুল হাসান ৩৫ ও আব্দুর রাজ্জাক ৭ রানে অপরাজিত আছেন। ৪ উইকেট হাতে নিয়ে ৩৪ রানে পিছিয়ে আছে খুলনা।

খুলনায় প্রথম স্তরের এই ম্যাচে আগের দিন রাজশাহীকে ২৬১ রানে গুটিয়ে দেওয়া খুলনা শুক্রবার দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিংয়ে নামে। স্বাগতিকরা উইকেট হারিয়েছে শুরুতেই।

আবারও সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়েছেন সৌম্য। প্রথম রাউন্ডে এক ইনিংসে ব্যাটিং পেয়ে করেছিলেন ৩৬ রান। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান এবার ৫ বলে রানের খাতা খুলতে পারেননি।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৮১ রান যোগ করেন আরেক ওপেনার এনামুল হক বিজয় ও ইমরুল। বিজয় থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি। লাঞ্চের আগে তাইজুল ইসলামের বলে বোল্ড হওয়ার আগে করেন ৬৬ বলে ৩৪ রান।

প্রথম রাউন্ডের ডাবল সেঞ্চুরিয়ান ইমরুল খেলে গেছেন তার মতোই। লাঞ্চের আগেই তুলে নিয়েছেন ফিফটি, ৮৪ বলে ৬ চারের সাহায্যে।

তুষার ইমরানকে সঙ্গে নিয়ে ইমরুল এগোচ্ছিলেন সেঞ্চুরির দিকেই। দ্বিতীয় সেশনে কোনো উইকেট পড়তে দেননি এই দুজন। ইমরুল চা বিরতিতে গিয়েছিলেন ৮৪ রান নিয়ে।

বিরতির পর সানজামুল ইসলামকে চার হাঁকিয়ে পৌঁছে গিয়েছিলেন নম্বইয়ের ঘরে। পরের বলেই দুর্ভাগ্যজনকভাবে রান আউটে কাটা পড়েন ইমরুল। ১৯০ বলে ১০ চারে ৯৩ রানের ইনিংসটি সাজান বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। মুখোমুখি প্রথম বলে চার মেরে শুরু করা মিথুন একই ওভারেই ফেরেন বোলারকে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে।

মিথুনের মতো প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা মেহেদী হাসান মিরাজও যেতে পারেননি দুই অঙ্কে। মাঝে তুষার ইমরান আউট হয়েছেন ফিফটি থেকে ৭ রান দূরে থাকতে। ১৪৩ বলে ৪ চারে ৪৩ রানের ইনিংস সাজান অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। দিনের শেষ সাত ওভার কাটিয়ে দিয়ে ১৯ রানের জুটিতে অবিচ্ছিন্ন আছেন নুরুল ও রাজ্জাক।

রাজশাহীর হয়ে শফিউল ইসলাম ৫৫ রানে ও তাইজুল ৭৫ রানে নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। ৩৮ রানে একটি উইকেট নিয়েছেন সানজামুল।

 

ঢাকা/পরাগ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন