ঢাকা, শনিবার, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২৩ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

অঙ্কনের ৯ রানের আক্ষেপ, মনিরের ৪ উইকেট

ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৮ ৬:৪৪:৪০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-১৮ ৬:৫৩:০৩ পিএম

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে প্রথমবার পঞ্চাশ ছুঁয়ে সেঞ্চুরির সুবাস পাচ্ছিলেন মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন। কিন্তু মাত্র ৯ রানের জন্য সেঞ্চুরিটা পাওয়া হয়নি তরুণ এই ব্যাটসম্যানের। মনির হোসেনের দারুণ বোলিংয়ে চট্টগ্রামকে চারশর আগে থামানোর পর শেষ বিকেলে দ্রত উইকেট হারিয়ে চাপে পড়েছে বরিশাল।

জাতীয় লিগের দ্বিতীয় দিনে ফতুল্লায় চট্টগ্রামের প্রথম ইনিংস শেষ হয়েছে ৩৫৬ রানে। জবাবে দিন শেষে বরিশালের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১০৪ রান। ৬ উইকেট হাতে নিয়ে এখনো ২৫২ রানে পিছিয়ে আছে বরিশাল।

দ্বিতীয় স্তরের এই ম্যাচে ৪ উইকেটে ২৬১ রান নিয়ে শুক্রবার দ্বিতীয় দিন শুরু করেছিল চট্টগ্রাম। অঙ্কন ৬৯ ও ইয়াসির আলী ৬৮ রানে ব্যাটিংয়ে নামেন।

ইয়াসির অবশ্য ফিরে গেছেন দিনের শুরুতেই। তার বিদায়ে ভাঙে ১২১ রানের জুটি। নুরুজ্জামানের বলে এলবিডব্লিউ হওয়ার আগে ১৫৭ বলে ৪ চার ও এক ছক্কায় ইয়াসির করেন ৭০ রান।

এরপর মাসুম খানকে সঙ্গে নিয়ে সেঞ্চুরির দিকে এগোচ্ছিলেন অঙ্কন। কিন্তু ৯১ রানে মনিরের বলে রাফসান আল মাহমুদের হাতে ক্যাচ দেন ২০ বছর বয়সি ব্যাটসম্যান। ১৫৮ বলে ৮ চার ও ২ ছক্কায় সাজান ইনিংসটি।

এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট হারিয়েছে চট্টগ্রাম। ৫২ রান তুলতেই তারা হারায় শেষ ৫ উইকেট। ১২৩ বলে ৪ চার ও এক ছক্কায় ৫০ রানে অপরাজিত ছিলেন মাসুম।

বাঁহাতি স্পিনার মনির ৯৯ রানে নেন ৪ উইকেট। মোসাদ্দেক হোসেন ২৯ রানে নেন ২ উইকেট। একটি করে উইকেট গেছে নুরুজ্জামান, মোহাম্মদ আশরাফুল ও তানভীর ইসলামের ঝুলিতে।

জবাবে বরিশালের দুই ওপেনার শাহরিয়ার নাফীস ও রাফসান মাহমুদ প্রথম এগারো ওভার কাটিয়ে দিয়েছিলেন নিরাপদেই। কিন্তু শাহরিয়ার থিতু হয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি। ৪৫ বলে ১৭ রান করা বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে ২৯ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন নোমান চৌধুরী।

এরপর রাফসান ও অধিনায়ক ফজলে মাহমুদ দলকে নিয়ে গিয়েছিলেন একশর কাছে। কিন্তু শেষ বিকেলে পরপর তিন ওভারে তিন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় তারা।

অফ স্পিনার নাঈম হাসান নিজের পরপর দুই ওভারে ফেরান দুই সেট ব্যাটসম্যান ফজলে মাহমুদ (১৪) ও রাফসানকে (৪৯)। মাঝের ওভারে নাইটওয়াচম্যান কামরুল ইসলাম রাব্বীকে ফেরান মিনহাজুল আবেদীন আফ্রিদি। ১ উইকেটে ৯২ থেকে বরিশালের স্কোর তখন ৪ উইকেটে ৯৫!

দিনের শেষ দুই ওভার কাটিয়ে দেন আশরাফুল ও মোসাদ্দেক। দুজনই ৪ রানে অপরাজিত আছেন।

 

ঢাকা/পরাগ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন