Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     রোববার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||  ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭ ||  ১৫ রজব ১৪৪২

চাল আমদানির প্রভাব বাজারে, কমেছে পেঁয়াজ-আলুর দামও

শিহাবুল ইসলাম || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১২:৪৭, ২২ জানুয়ারি ২০২১   আপডেট: ১৩:০৫, ২২ জানুয়ারি ২০২১
চাল আমদানির প্রভাব বাজারে, কমেছে পেঁয়াজ-আলুর দামও

প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত থেকে আমদানি করার প্রভাবে দেশের বাজারে কমতে শুরু করেছে চালের দাম।  অপরদিকে সপ্তাহের ব্যবধানে পেঁয়াজ ও আলুর দামও কমেছে।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) কাওরানবাজারসহ রাজধানীর কয়েকটি বাজারে এমন চিত্রই দেখা গেছে।

বাজারে কোনো কোনো চালের দাম স্থিতিশীল, কোনো কোনো চালের দাম কেজি প্রতি ২-৩ টাকা কমেছে।  খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, আমদানি হওয়ার কারণে চালের দাম কমাতে বাধ্য হচ্ছেন মিল মালিকরা।  

এদিকে সপ্তাহের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম ৫ টাকা কমেছে প্রতি কেজিতে।  আলুর দাম কমেছে ৫-১০ টাকা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, গত সপ্তাহে প্রতি কেজি চিনিগুঁড়া চাল বিক্রি হয়েছে ৮০-৯০ টাকায়, এ সপ্তাহেও একই দামে বিক্রি হচ্ছে। বাসমতি গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছে ৭০ টাকা কেজি, এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৬৬ টাকায়। মিনিকেট গত সপ্তাহে বিক্রি ৬০-৬১ টাকা কেজি ছিল, এ সপ্তাহেও একই দামে দামে বিক্রি হচ্ছে। নাজিরশাইল গত সপ্তাহে ছিল ৬২-৬৪ টাকা কেজি, এই সপ্তাহেও একই দামে বিক্রি হচ্ছে। গুটি স্বর্ণা গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছে ৪২-৪৩ টাকা কেজি, এ সপ্তাহেও একই দামে বিক্রি হচ্ছে। পাইজাম গত সপ্তাহে ছিল ৪৪-৪৬ টাকা, এ সপ্তাহেও একই দরে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া ২৮ চাল বিক্রি হচ্ছে ৪৯-৫০ টাকা এবং কাটারিভোগ বিক্রি হচ্ছে ৮২-৮৬ টাকায়।

কাওরানবাজারের চাল ব্যবসায়ী আবদুল আওয়াল তালুকদার (আল্লাহর দান রাইস এজেন্সি) বলেন, 'চালের দাম কিছুটা কমেছে। প্রায় সব চালেই ২-৩ টাকা করে কমেছে।  ভারতের চাল বাজারে আসছে, কিন্তু মিল মালিকরাতো শক্ত হয়ে আছে। এখন চাল আসায় তাদের বাধ্য হয়ে দাম কমাতে হচ্ছে।

এদিকে, গত সপ্তাহের চেয়ে এ সপ্তাহে কমেছে আলুর দাম। নতুন সাদা ও লাল আলু কেজি প্রতি ১০-১৫ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ২০-২৫ টাকা কেজি। গাজর গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছে ৪০ টাকা কেজি, তবে এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৩০-৩৫ টাকায়। করলা আগের দামেই ৩০-৪০ কেজি, শালগম ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আধাপাকা টমেটোর দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ২০-৩০ টাকা কেজি। মুলা ১৫-২০ টাকা কেজি, সিম মানভেদে ৩০-৩৫ টাকা ও শশা বিক্রি হচ্ছে ৩০-৪০ টাকায়। বাঁধাকপি ও ফুলকপির দাম কমে বিক্রি হচ্ছে আকার ভেদে ১০-১৫ টাকা পিস, যা গত সপ্তাহে ছিল ২০-২৫ টাকা কেজি।  সপ্তাহের ব্যবধানে দাম কমেছে মরিচের দামও। গত সপ্তাহে প্রতি কেজি মরিচের দাম ছিল ৮০-১০০ এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ৮০-৮৫ টাকা। তবে সবজির আকার ও মান ভেদে রাজধানীর অন্যান্য খুচরা বাজারে কেজি প্রতি ৫-১০ টাকা বেশি দামে বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা।

এ ছাড়া দেশি পেঁয়াজের দাম কমেছে প্রতি কেজিতে ৫-১০ টাকা।  নতুন পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে কেজি ৩০-৩৫ টাকা দরে।  যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০ টাকা কেজি।

কাওরান বাজারের ব্যবসায়ী আবদুল গাজি বলেন, 'মহাজনেরা পেঁয়াজ বেশি নিয়ে আসতেছে এজন্য দাম কম।'

এদিকে আগের সপ্তাহের মতই বিক্রি হচ্ছে ব্রয়লার মুরগি।  গত সপ্তাহে ছিল ১৪০ টাকা কেজি, এ সপ্তাহেও একই দামে বিক্রি হচ্ছে। পাকিস্তানি জাতের মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৩০-২৪০ টাকা কেজি।  দেশি মুরগি আগের মতোই বিক্রি হচ্ছে ৪৫০ টাকা কেজি।  লাল কর্ক মুরগির দাম বেড়েছে।  গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছে ১৮০ টাকা কেজি, এ সপ্তাহে বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকা কেজিতে।

ঢাকা/এসআই/টিপু

 

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়