Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৮ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ১২ ১৪২৮ ||  ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

Risingbd Online Bangla News Portal

১৭ দেশের কোম্পানির সঙ্গে কাজ করেছেন আসিফ

সাজেদুর আবেদীন শান্ত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১১:৪৮, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১২:০৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
১৭ দেশের কোম্পানির সঙ্গে কাজ করেছেন আসিফ

সাব্বির রহমান আসিফ। একজন ফ্রিল্যান্সার এবং গ্রোথ আস্কের প্রতিষ্ঠাতা। ইতোমধ্যেই আসিফ ১৭টিরও বেশি দেশের বিভিন্ন কোম্পানির সঙ্গে মিডিয়া বায়ার ও সেলস ফানেল স্পেশালিস্ট হিসেবে কাজ করেছেন। 

আসিফ বর্তমানে পড়াশোনা করছেন ঢাকার সিদ্ধেশ্বরী কলেজে অনার্সে অধ্যয়নরত। বাবা মো. খোরশেদ আলম ও মা নাজমা বেগমের বড় ছেলে তিনি। নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম হলেও আসিফের স্বপ্ন ছিল বড় কিছু করার। তার ইচ্ছাশক্তি আর আত্মবিশ্বাস তাকে ফ্রিল্যান্সিংয়ের মাধ্যমে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে এসেছে।

আসিফ বলেন, ৭ম শ্রেণিতে থাকা অবস্থায়, বাবা যে প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন তা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে শুরু হয় পারিবারিক আর্থিক সংকট। বাবা-মায়ের দুশ্চিন্তা ঘোচানোর কোনো উপায় আমার কাছে তখন ছিল না। কারণ, এত অল্প বয়সে আমার কিছু করার ছিল না। মনে জেদ ছিল যেভাবেই হোক কিছু একটা করতে হবে। ৯ম শ্রেণিতে থাকা অবস্থায় জানতে পারি ওয়েব ডিজাইন সম্পর্কে। কিন্তু বাসায় কম্পিউটার না থাকার কারণে তা শেখা প্রায় অসম্ভব ছিল। পরবর্তী সময়ে জানতে পারি ডিজিটাল মার্কেটিং সম্পর্কে। কিন্তু এই বিশাল ক্যাটাগরিতে সবকিছু অল্প সময়ে শেখা সম্ভব হচ্ছিল না। তাই বেছে নিলাম মিডিয়া বায়িংকে। বিভিন্ন ব্লগ ইউটিউব ভিডিও দেখে কাজ শেখা শুরু করলাম। সেইসঙ্গে পড়াশোনাও চালিয়ে যেতে লাগলাম।

আসিফ আরও বলেন, সেই সময়ে বাইরের দেশের মার্কেটারদের বিভিন্ন টিউটোরিয়াল দেখতাম। তা দেখে কাজ শেখার চেষ্টা করতাম। যার ফলাফল মার্কেটপ্লেসের বাইরের ক্লাইন্ট হান্টিং কীভাবে করতে হয় জানতে পারলাম। এরপর কাজের অনুসন্ধান করতে লাগলাম। অনেক অনুসন্ধানের পর প্রথম কাজ পেয়েছিলাম। প্রথম ক্লাইন্ট ছিল একটি ফেসবুক গ্রুপ থেকে। তার লোকাল ই-কমার্সে ফেসবুক মিডিয়া বায়ার হিসেবে কাজ শুরু করি।

আসিফের প্রথম মাসের বেতন ছিল ২০০ ডলার। এরপর আর পেছনে তাকাতে হয়নি তাকে। একেরপর এক কাজ করে গেছেন অনলাইনে। কাজের মাধ্যমে তার পরিচিতি ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। বর্তমানে তিনি ক্লাইন্টদের সর্বনিম্ন ৫৫০ ডলার পারিশ্রমিকে কাজ করে থাকেন। ফ্রিল্যান্সিংয়ে সফলতা পাওয়ার পর নিজেই প্রতিষ্ঠা করেন ইন্টারনেট ভিত্তিক ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি ‘গ্রোথ আস্ক’। এর মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের ছোট-বড় প্রতিষ্ঠানগুলোকে ইন্টারনেট মার্কেটিং সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

আসিফ মনে করেন, একটি সঠিক গাইডলাইন একজন মানুষকে যেকোনো কাজে সফল করে তুলতে পারে। অবশ্য গাইডলাইনের সাথে সাথে প্রয়োজন ইচ্ছাশক্তি ও আত্মবিশ্বাস। ইচ্ছাশক্তি আর আত্মবিশ্বাস না থাকলে সফলতা অসম্ভব।

লেখক: ফিচার লেখক ও গণমাধ্যমকর্মী। 

/মাহি/ 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়