RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ০১ অক্টোবর ২০২০ ||  আশ্বিন ১৬ ১৪২৭ ||  ১৩ সফর ১৪৪২

গণভবনে যুবলীগের মিটিংয়ে যাচ্ছেন না জবির উপাচার্য

জবি প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৯:৩৭, ১৯ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ০৫:২২, ৩১ আগস্ট ২০২০
গণভবনে যুবলীগের মিটিংয়ে যাচ্ছেন না জবির উপাচার্য

যুবলীগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিলে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদ ছেড়ে দেয়ার কথা জানানো ড. মীজানুর রহমান রোববার গণভবনে যাচ্ছেন না। সেখানে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে যুবলীগের শীর্ষ নেতাদের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

তবে ওই বৈঠকে তাকে যুবলীগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেয়া হলে তা পালন করবেন বলে রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন তিনি।

মীজানুর রহমান বলেন, ‘প্রেসিডিয়ামের বৈঠকে আমি যাব না। তবে যুবলীগ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পেলে আমি নিতে রাজি আছি। সেক্ষেত্রে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদ ছেড়ে দেব। আমি ভিসি পদের জন্য কখনো নিজে থেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করিনি। নেত্রী নিজে থেকে আমায় এই পদ দেন। আমি নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে এসেছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘যুবলীগ নিয়ে সারা দেশে সমালোচনা শুরু হওয়ার পর অনেক নেতাকর্মী আমাকে দায়িত্ব নেয়ার জন্য অনুরোধ করেছে। সে কারণে আমি বলছি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি আমায় যুবলীগের দায়িত্ব দেন তবে তা আমি সঠিকভাবে পালন করে নেত্রীর সম্মান অক্ষুণ্ণ রাখব। এমনিতেই একদিন আমার ভিসি পদের সময় শেষ হবে। তাই আমি এ কথা জানিয়েছি।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক মীজানুর রহমানের যুবলীগ-সম্পৃক্ততা প্রায় ২০ বছরের। ষাটোর্ধ্ব এই অধ্যাপক বর্তমানে সংগঠনটির প্রথম প্রেসিডিয়াম সদস্য। তবে ২০১৩ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ‌্যালয়ের উপাচার্য হওয়ার পরে আর সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত নন বলে জানিয়েছেন তিনি।

অধ্যাপক মীজানুর রহমান বলেন, ‘যুবলীগের রাজনীতি আমি দীর্ঘদিন ধরে করি। তবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব দেয়ার পর থেকে যুবলীগের কোনো কর্মকাণ্ডে জড়াইনি।’

গত ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার কয়েকটি ক্লাবে র‌্যাবের অভিযানে ক্যাসিনো চালানোর প্রমাণ পাওয়ার পর এতে যুবলীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের সম্পৃক্ততার বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। অবৈধভাবে ক্যাসিনো চালানোয় যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট এবং সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এর সঙ্গে যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর নামও উঠে আসে। তার বিদেশগমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পাশাপাশি ব্যাংক হিসাবও তলব করা হয়। সম্প্রতি তার গণভবনে যাওয়ার ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গ তুলে ধরে মীজানুর রহমান বলেন, ‘ওমর ফারুক চৌধুরী চেয়ারম্যানের দায়িত্বে না থাকলে ১ নম্বর সহ-সভাপতি হিসেবে আমিই দায়িত্বে আসি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে যুবলীগের দায়িত্ব দিলে ভিসির পদ ছাড়তে আমি রাজি আছি। প্রধানমন্ত্রী আমায় যখন যে দায়িত্ব দেবেন, আমি সেটাই পালন করব, তবে একসাথে দুটো কাজ নয়।‘

আরো পড়ুন : ‘সংগঠনের প্রতি ভালোবাসা থেকেই আমি এ কথা বলেছি’

ঢাকা/তমাল/পারভেজ/রফিক

রাইজিংবিডি.কম

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়