ঢাকা     সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ১৬ ১৪২৯

‘ঢাকার সমাবেশ ঘিরে সহিংসতার আশঙ্কা করছি না’

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:২৮, ১ ডিসেম্বর ২০২২  
‘ঢাকার সমাবেশ ঘিরে সহিংসতার আশঙ্কা করছি না’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু বলেছেন, সারা দেশে আটটি সমাবেশ করেছি। কোথাও কোনো সহিংসতা হয়নি, ঢাকাতেও হবে না। আমাদের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের সহিংসতার আশঙ্কা করছি না।  
 
বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) পুলিশ সদর দপ্তরে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন।

বরকত উল্লাহ বুলু বলেন, আমরা ১ ঘণ্টা বৈঠক করেছি। আইজিপি, পুলিশ কমিশনারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সেখানে ছিলেন। আমরা দেশের সার্বিক পরিস্থিতি, গায়েবি মামলা, বাধা-হামলার ঘটনা, আওয়ামী লীগের বাধাসহ নানা বিষয় তুলে ধরেছি। হাইকোর্টের গেট থেকে ৫০ জন বিএনপি নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ । নরসিংদিতে গায়েবি মামলা হয়েছে। আমরা এ মামলার ব্যাপারে কথা বলেছি। তিনি (আইজিপি) দেখবেন বলে জানিয়েছেন। 

সমাবেশ ঘিরে কী আলোচনা হলো জানতে চাইলে বুলু বলেন, আমরা পল্টনে সমাবেশ করতে চাই। তারা বলছেন, সোহরাওয়ার্দীতে করতে। আমরা স্থান নির্ধারণ নিয়ে আমাদের বিষয়টি জানিয়েছি।

তিনি বলেন, বিভিন্ন সময় পুলিশের গুলিতে ৭ জন নেতা-কর্মী নিহত হয়েছেন। আমরা এ বিষয়ে জানিয়েছি। হত্যার বিষয়ে তারা তদন্ত করে দেখবেন। কোনো পুলিশ সদস্য যদি বেআইনিভাবে হত্যায় জড়িয়ে থাকে তবে ব্যবস্থা নেবেন।

বুলু বলেন, আমরা গায়েবি মামলার কপি পুলিশ প্রধানকে দিয়েছি। তিনি খতিয়ে দেখবেন বলে জানিয়েছেন। আমরা বলে এসেছি, একই মামলা যুবলীগের নেতা বাদি, পুলিশও বাদি। এটা তো হয় না। এটাই তো প্রমাণ করে গায়েবি মামলা।

বিএনপির আরেক নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল এ সময় বলেন, আমরা বলেছি, আওয়ামী লীগ সরকার আমাদের পুলিশের প্রতিপক্ষ বানানোর চেষ্টা করছে। আমরা আসলে পুলিশের প্রতিপক্ষ না। আস্থার সংকট হচ্ছে মূল। যা নির্ভর করছে সরকারের মানসিকতার ওপর।

তিনি বলেন, বিএনপির নামে স্লোগান দিয়ে ককটেল ফোটানো হচ্ছে। আমরা আমাদের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের সহিংসতার আশঙ্কা করছি না। তবে এর বাইরে অন্য কেউ যদি নাশকতা করে বা করার চেষ্টা করে সেটা পুলিশ দেখবে। সেটা তাদের দায়িত্ব। আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিরই প্রস্তুতি নিচ্ছি।

প্রতিনিধি দলে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির  প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি এবং আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।
এর আগে গত মঙ্গলবার ডিএমপি ২৬ শর্তে বিএনপিকে ১০ ডিসেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি দেয়। তবে বিএনপি নয়া পল্টনে সমাবেশ করতে চায়। 

ঢাকা/মাকসুদ/ইভা 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়