ঢাকা     শনিবার   ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||  মাঘ ২১ ১৪২৯

আ.লীগ রাজপথে থাকায় বিএনপি ভয় পেয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:০৬, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩   আপডেট: ২২:২৩, ২৫ জানুয়ারি ২০২৩
আ.লীগ রাজপথে থাকায় বিএনপি ভয় পেয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি: সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের রাজপথের কর্মসূচিতে কেন্দ্র করে বিএনপি নেতাদের বক্তব্যে ‘ভীতি স্পষ্ট হয়েছে’ বলে মনে করছেন দলটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) মিন্টু রোডে নিজের সরকারি বাসভবনে সদ্য আত্মপ্রকাশ হওয়া ‘ফিল্ম অ্যালেয়ান্স অব বাংলাদেশ’ নামের একটি সংগঠনের নেতারা দেখা করতে এলে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।  

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মির্জা ফখরুল সাহেবের কথায় মনে হয়েছে, আমাদের পাল্টা কর্মসূচিতে বিএনপি ভয় পেয়েছে। আমি গত কয়েকদিন ওনার বক্তব্য দেখেছি। আওয়ামী লীগ রাজপথের দল। আমাদের নেতাকর্মীরা রাজপথে স্বাচ্ছন্দ্য অনুভব করে।’

‘আমরা মনে করি যে, ক্ষমতায় থাকি বা না থাকি, আওয়ামী লীগ রাজপথের দল। আমরা রাজপথে আছি এবং থাকবো। আমাদের কর্মীরা সারাদেশে লাখে লাখে রাজপথে নামার কারণে মনে হচ্ছে, বিএনপির নেতৃবৃন্দ ভয় পেয়েছে।’

ভবিষ্যতে কীভাবে সিনেমা শিল্পকে এবং সমগ্র বাংলাদেশে সাংস্কৃতিক জাগরণ তৈরির করণীয় নিয়ে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আগে পাড়ায় পাড়ায় নাট্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ছিল। এখন কিন্তু আগের মতো নেই। আগে গ্রামে গ্রামে যাত্রা এবং কবিগান, সেগুলো হতো। এখন কিন্তু আগের মতো হয়নি। আবহমান বাংলার যে সাংস্কৃতিক চর্চা, সেটি আজ থেকে ২০-৩০ বছর আগেও যেমনটি হত, এখন সেরকম হয়নি।

একটি জাতিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে তার মৌলিক সাংস্কৃতিক সংরক্ষণ করা প্রয়োজন উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, পাশাপাশি সাংস্কৃতিকভাবে যদি কেউ সমৃদ্ধ হয়, তিনি তখন মৌলবাদী হন না, তিনি পশ্চাৎপদ মানুষ হন না এবং সমাজও সেক্ষেত্রে উপকৃত হয়। সমাজ পশ্চাৎপদ হয় না।

‘এজন্য আমরা যে বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা করেছি। সিনেমা শিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সারাদেশে একটি সাংস্কৃতিক জাগরণ তৈরি করার জন্য কী করা যায়, সে নিয়ে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করেছি।’

তথ্যমন্ত্রী বলে, ‘আমি মনে করি আজকের প্রেক্ষাপটে যখন অনেক তরুণ বিপদগামী হচ্ছে, অনেকে মৌলবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হচ্ছে এবং আমাদের অনেক তরুণ মাদকাসক্ত হচ্ছে...। আজকের বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যদি বিশ-ত্রিশ বছর আগের ছবি মেলানো হয়, ছাত্রছাত্রীদের অনেক পার্থক্য দেখতে পাবে। সেই পার্থক্যগুলো কী সেটি অনুধাবন করতে পারবেন।’

‘সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে সারাদেশে একটি সাংস্কৃতিক আন্দোলন দরকার। সেটির কোনও বিকল্প নেই’- বলেন ড. হাছান।

পারভেজ/এনএইচ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়