ঢাকা     বুধবার   ২৯ জুন ২০২২ ||  আষাঢ় ১৫ ১৪২৯ ||  ২৯ জিলক্বদ ১৪৪৩

নেত্রকোনায় মাঠজুড়ে হলুদের সমাহার

নেত্রকোনা সংবাদদাতা || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১২, ১১ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৫:৩৮, ১১ জানুয়ারি ২০২২
নেত্রকোনায় মাঠজুড়ে হলুদের সমাহার

ফসলের মাঠে তাকালেই চোখে পড়ে হলুদের সমাহার। হলুদ ফুলে ছেয়ে গেছে মাঠ। মৌমাছির মৌ মৌ শব্দে মুখর চারদিক। এমনটিই দেখা গেছে নেত্রকোনার বিভিন্ন হাওরে।  এবছর জেলায় সরিষার আবাদ ভালো হয়েছে। কম খরচে বেশি ফলন পাওয়ায় সরিষা চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন কৃষকরা।

নেত্রকোনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, নেত্রকোনায় ধানের পাশাপাশি সরিষার ফলনও ভালো হয়। জেলায় এ বছর ৫ হাজার ১৯৫ হেক্টর জমিতে সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। তবে আবাদ হয়েছে ৬ হাজার ২৫০ হেক্টর জমিতে।  যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি।

এ বছর জেলায় সরিষা উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬ হাজার ৭৫৪ মেট্রিকটন।

স্থানীয় কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জেলার কলমাকান্দা, কেন্দুয়া উপজেলায়সহ ১০ উপজেলায় সরিষা আবাদ হয়েছে। তবে সবচেয়ে বেশি আবাদ হয়েছে কলমাকান্দা উপজেলায়। ফুল ও ফল ধরেছে ভালো। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষকরা।

কেন্দুয়ার কৃষক বিপ্লব মিয়া জানান, ‘সরিষা আবাদে খরচ অনেক কম। তাই গত বছরের তুলনায় এ বছর আবাদ বেশি করেছি। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে ভালো ফলন হবে।’

নেত্রকোনা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এফ এম মোবারক আলী বলেন, ‘সরষিা আবাদে খরচ অনেক কম। ফলে কৃষকদের বেশি অর্থ ব্যয় করতে হয়না। এতে করে দিন দিন কৃষকরা সরিষা আবাদে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে কৃষকদের বিভিন্নভাবে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। সরিষা আবাদে আরো জনপ্রিয়তা বাড়াতে কৃষকদের কৃষি প্রনোদনা দেওয়া হচ্ছে।’

দেবল/ মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়