ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৮ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিকল্প চিকিৎসা

আহমেদ শরীফ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৫-১৪ ১:০৪:০০ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৫-১৪ ৩:৪৫:৫২ পিএম

করোনাভাইরাস দিন দিন যেন শক্তিশালী হয়ে উঠছে। ভাইরাসটিকে পরাজিত করতে স্বীকৃত কোনো ওষুধ এখনো বাজারজাত হয়নি। এ অবস্থায় কিছু বিকল্প চিকিৎসার কথা অনেক বিশেষজ্ঞই দাবি করে আসছেন। চলুন জেনে নেই সেগুলো আসলে কতোটা ফলপ্রসূ।

আয়ুর্বেদ চিকিসা: করোনাভাইরাসের সাথে লড়তে ভারতে ক্লিনিক্যালি আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা শুরু হতে যাচ্ছে শিগগিরই। তবে এতে কেমন ফল পাওয়া যাবে, তা এখনো নিশ্চিত না চিকিৎসকরা।

হোমিওপ্যাথি চিকিসা: গবেষকরা বলছেন, করোনার এই মহামারিতে হোমিওপ্যাথি ওষুধ ‘আর্সেনিকাম অ্যালবাম থার্টি সি’ ভালো ভূমিকা রাখতে পারে। এই ওষুধটি করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে পারে বলে দাবি করছেন হোমিওপ্যাথি বিশেষজ্ঞরা। তাদের দাবি, ১০০ বছর আগে পৃথিবীজুড়ে আরেক ভয়াবহ মহামারি ‘স্প্যানিশ ফ্লু’ এর চিকিৎসার জন্য হোমিওপ্যাথি ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছিল। এক্ষেত্রে অবশ্য বৈজ্ঞানিক কোনো প্রমাণ নেই।

প্রাচীন চীনা ওষুধ: করোনা ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনে একটা পর্যায়ে ডাক্তাররা করোনাভাইরাসে মৃত্যু ঠেকাতে প্রাচীন কাল থেকে দেশটিতে যেসব ভেষজ উদ্ভিদ ব্যবহৃত হয়ে আসছিল, তার শরনাপন্ন হন। তবে আমেরিকা সহ কয়েকটি দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চীনা সেসব ভেষজ উদ্ভিদ ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়।

ঘরোয়া চিকিসা: সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বেশ কিছু ঘরোয়া টিপসের কথা এখন ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকেই দাবি করছেন আদা, রসুন, পেঁয়াজ খাওয়া, গরম পানিতে গার্গল করা, লবঙ্গ, এলাচ সহ চা পান করা, করোলার জুস পান করা করোনা ঠেকাতে পারে। তবে যদিও এসব মসলা ও সবজি দারুণ স্বাস্থ্যকর, এগুলো করোনা প্রতিরোধ করতে পারে কি না তা প্রমাণিত না।

শেষ কথা: বিকল্প পদ্ধতির চিকিৎসায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধ করা সম্ভব কি না, তা এখন পর্যন্ত প্রমাণিত হয়নি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও বিকল্প চিকিৎসাকে স্বীকৃতি দেয় না। তাই বিকল্প চিকিৎসা ও ঘরোয়া পদ্ধতিতে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে খুব বেশি নির্ভরশীল না হওয়া ভালো। এটা ঠিক ঘরোয়া টিপসগুলো আপনাকে এই মহামারিকালে বেশ স্বস্তি দেবে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করবে। করোনা থেকে রেহাই পেতে অবশ্য দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলে জীবনযাপন করা উচিত এখন।

 

ঢাকা/ফিরোজ