ঢাকা, বুধবার, ৫ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

কাদেরপন্থিদের উল্লাস, ক্ষুব্ধ রওশন অনুসারীরা

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৮ ৮:৫৯:২৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-১৯ ১০:০৮:২২ এএম
কাদেরপন্থিদের উল্লাস, ক্ষুব্ধ রওশন অনুসারীরা
Walton E-plaza

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছোট ভাই গোলাম মোহাম্মদ কাদেরকে জাতীয় পার্টির নতুন চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে। হুট করে এমন  ঘোষণায় জাতীয় পার্টিতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

নতুন চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের অনুসারীরা এ ঘোষণায় আনন্দ উল্লাস করছেন। অন্যদিকে এ ঘটনায় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদের অনুসারীরা ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

কাদের অনুসারীরা মনে করেন, সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অন্যদিকে রওশন এরশাদের অনুসারীরা মনে করেন, দলীয় ফোরামে আলাপ-আলোচনা ছাড়া এভাবে তড়িঘড়ি করে চেয়ারম্যান ঘোষণার মধ্যদিয়ে জাতীয় পার্টিতে নতুন করে কোন্দল সৃষ্টি হয়েছে। যে প্রক্রিয়ায় জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে তা নিয়ে আপত্তি তুলেছেন তারা। ফলে, জিএম কাদের তার বড় ভাই এরশাদের মত দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীর কাছে গ্রহণযোগ্য হতে পারবেন কিনা সংশয় প্রকাশ করেছেন তারা।

জানা গেছে, জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণার পর থেকে দলের জ্যেষ্ঠনেতারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। তাদের অনেকেই এখন পর্যন্ত জিএম কাদের এর নেতৃত্বে সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে অংশ নিচ্ছে না। আর যারা জিএম কাদেরের সঙ্গে রয়েছেন, তারাও ঘোষণার পর থেকে এ বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখছেন। তাদের কেউ কেউ গণমাধ্যমকে এড়িয়ে চলছেন।

দলের জ্যেষ্ঠনেতা অ্যাডভোকেট কাজী ফিরোজ রশীদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি মিটিং এ আছেন বলে এড়িয়ে যান। একইভাবে এ বিষয়ে কথা বলতে দলের আরো বেশ কজন জ্যেষ্ঠনেতাকে ফোন করা হলেও তারা কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন। তবে দলের জ্যেষ্ঠনেতাদের অনেকেই নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ বিষয়ে রাইজিংবিডির সঙ্গে কথা বলেছেন।

খবর নিয়ে জানা গেছে, প্রয়াত এরশাদের যেই সাংগঠনিক আদেশ বলে জিএম কাদেরকে নতুন চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে সেটি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

দলের একটি অংশের নেতাদের অভিযোগ, পার্টির চেয়ারম্যান স্বেচ্ছায় জিএম কাদেরকে পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, পরবর্তী দলের কো চেয়ারম্যান ও সংসদের উপনেতার পদ থেকে সরিয়ে দেন। কিন্তু পরবর্তীতে তার অনুসারী রংপুরের কিছু নেতা অসুস্থ পার্টির চেয়ারম্যানের বাসায় পাহারা বসিয়ে তাকে চাপ দিয়ে জিএম কাদেরকে দলের কো চেয়ারম্যান পদে পুনর্বহাল করেন। একই কায়দায় পরে এরশাদকে দিয়ে তাকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, পরবর্তীতে তার অবর্তমানে চেয়ারম্যান নিয়োগ দিতে বাধ্য করেছেন। ফলে, দলীয় ফোরামে আলোচনা ছাড়া এমন একটি বিতর্কিত আদেশের ওপর ভিত্তি করে জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণা ভবিষ্যতে জাতীয় পার্টির জন্য হিতে বিপরীত হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে ওই অংশের নেতারা।

জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণায় রওশন অনুসারীদের মাঝে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। তাদের প্রভাবশালী একজ্যেষ্ঠ নেতা ও সাংসদ রাইজিংবিডিকে বলেন, পার্টির চেয়ারম্যানের মৃত্যুর শোক এখনো কাঠিয়ে উঠেনি। নেতাকর্মী ও তার পরিবার শোকে মুহ্যমান। এ অবস্থায় তড়িঘড়ি করে জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণা দিতে হবে কেন? অতিউৎসাহী হয়ে যারা একাজ করেছেন তারা দলের ভাল চান না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

জাপার প্রভাবশালী এক প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, যে প্রক্রিয়ায় জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে তাতে আমরা বিস্মিত। দলের নেতাকর্মীরা চাইলে তিনি চেয়ারম্যান হবেন এতে কারো আপত্তি থাকার কথা নয়। দলের সবচাইতে সিনিয়র নেতা ও কো চেয়ারম্যান রওশন এরশাদসহ জ্যেষ্ঠনেতাদের সম্মতি নেয়া উচিত ছিল। তাদের বাদ দিয়ে জিএম কাদের দল পরিচালনা করতে চাইলে হোঁচট খাবেন, এটা বলতে পারি।

তিনি বলেন, যে সাংগঠনিক আদেশে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তার অবর্তমানে পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরকে নিয়োগ দিয়েছেন, সেই সাংগঠনিক আদেশের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন আছে। আদৌ সেটি পার্টির চেয়ারম্যানের কিনা। কারণ মধ্য রাতে সাংবাদিক ডেকে জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। সেসময় আমাদের নেতা গুরতর অসুস্থ ছিলেন। ঘুমের ঘোরে ঘোষণা দিতে পারছিলেন না। তার আশেপাশে দলের জ্যেষ্ঠনেতাদের কেউ ছিলেন না। বরং জিএম কাদেরের অনুসারী গুটি কয়েক জুনিয়র নেতার চাপের মুখে সেটা এরশাদকে দিয়ে জোর করে পড়ানো হয়েছে বলে আমরা জানি।

অন্যদিকে জিএম কাদেরকে চেয়ারম্যান ঘোষণায় দলের তার অনুসারীরা আনন্দ উল্লাস প্রকাশ করছেন। তারা মুঠোফোনে নেতাকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন। দলের তৃণমূল নেতাকর্মীরা জিএম কাদেরকে অভিনন্দন জানিয়ে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাসিয়ে দিচ্ছেন।

জিএম কাদের অনুসারী দলের এক প্রেসিডিয়াম সদস্য বলেন, জিএম কাদেরকে পার্টির চেয়ারম্যান নিজেই উত্তরসুরি নির্ধারণ করে গেছেন। তাকে চেয়ারম্যান ঘোষণা সময়ের সঠিক সিদ্ধান্ত। তার মত ক্লীন ইমেজের ব্যাক্তিকে চেয়ারম্যান করার মধ্যদিয়ে জাতীয় পার্টির অস্থিত্ব রক্ষা পেয়েছে। তৃণমূল নেতাকর্মীরা এখন চাঙ্গা হয়ে উঠেছে।’ তিনি বিভেদ সৃষ্টি না করে জিএম কাদের এর নেতৃত্বে জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান ।

প্রসঙ্গত, বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টির নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে গোলাম মোহাম্মদ কাদের এর নাম ঘোষণা করেন দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/ ১৮ জুলাই ২০১৯/নঈমুদ্দীন/সাজেদ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge