ঢাকা, শনিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

দেশটিভির আরিফের ১২৮ কোটি টাকার সম্পদের সন্ধান

এম এ রহমান মাসুম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৩ ৭:৪০:৪৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৪ ১:৩৯:৫০ এএম

দেশ টেলিভিশনের পরিচালক আরিফ হাসান ও তার পিতার নামে ১২৮ কোটি টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের সন্ধান পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ।

আর ওই সব সম্পদের কোনো বৈধ উৎস না পাওয়ায় এরিমধ‌্যে তা অবরুদ্ধ করতে আদালতে অনুমতি চেয়ে চিঠি দিয়েছে সংস্থাটি।

আদালতের নিকট পাঠানো আবেদনে বলা হয়েছে, দেশ টেলিভিশনের পরিচালক আরিফ হাসান সিন্ডিকেটের মাধ্যমে অবৈধ অর্থ আদায় করে অঢেল সম্পদের মালিক হয়েছেন। তিনি ২০১১ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ৬ বার পাসপোর্ট পরিবর্তন করেছেন। এ পর্যন্ত আরিফের ১২৮ কোটি সাত লাখ ১৭ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদের তথ্য পাওয়া গেছে, যা জ্ঞাত আয়ের সম্পদের সাথে অসঙ্গতিপূর্ণ।

বিভিন্ন ব্যাংকে লেনদেনের তথ্য পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, তিনি ২০১৯ সালের ৬ নভেম্বর রাজধানীর সাউথইষ্ট ব্যাংকের মৌচাক শাখায় ( হিসাব নং ০০৪৫-১২১০০০০০১৬২) ১৮টি হিসাবে ৬ কোটি ৫০লাখ টাকা জমা দেন। একই দিন সাত কোটি টাকা উত্তোলন হয় ওই হিসাব থেকে। ১৯ নভেম্বর পর্যন্ত ওই হিসাবে এক কোটি ৩৯ লাখ ৩৩ হাজার ৩৩৮ টাকা জমা ছিল বলে জানা যায়। যার প্রকৃত আয়ের উৎস জানা নেই। সাউথইষ্ট ব্যাংকের মৌচাক শাখার অপর সঞ্চয়ী হিসাবে, হাসান টেলিকমের নামের হিসাবে (হিসাব নং ০০৪৫ ১১১০০০০০৭৫৩) ৬ নভেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন ব‌্যাংকের ৮টি হিসাবে ৩৭ কোটি টাকা জমা হয়। একই দিন পে-অর্ডারের মাধ্যমে ৩৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা উত্তোলন হয় বলে দুদকের অনুসন্ধানে ধরা পড়ে।

অনুসন্ধানে আরো দেখা যায়, হাসান টেলিকম লিমিটেড একটি কোম্পানি, যার ১০ হাজার শেয়ার রয়েছে।  আরিফ হাসানের নামে ৮ হাজার শেয়ার ও মোহাম্মদ আলমগীর নামের অপর একজনের নামে দুই হাজার শেয়ার রয়েছে এই কোম্পানির।

সম্পদের বর্ণনায় বলা হয়েছে, আরিফ হাসান ও তার পিতা আব্দুল আজিজের নামে গুলশানের ১১৮ নং রোডে (বাড়ি নং ৪) ৪৬ লাখ টাকার মূলন্রি একটি ফ্ল্যাট, বসুন্ধরায় জমি ক্রয়ে বিনিয়োগ দেড় কোটি টাকা, দেশ টিভির শেয়ারে বিনিয়োগ ৭৪ লাখ ৪০ হাজার টাকা, দেশ এন্টারটেইনমেন্ট লিমিটেড নামের একটি কোম্পানিতে বিনিয়োগ ৮ লাখ টাকা, হাসান টেলিকমের বিনিয়োগ ৮ লাখ, ৫ কোটি টাকার সঞ্চয়পত্র এবং বিভিন্ন ব্যাংকে সঞ্চয়ী হিসাব, এফডিআর ও নগদসহ মোট ১২০ কোটি ৬৮ লাখ ৭৪ হাজার ৫৩৮ টাকা।

আবেদনপত্রে আরিফ হাসানের (জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর-১৯৭২৬৯২৬১৯০০০০৯৭) নামে উল্লেখিত সম্পদ ও জমাকৃত অর্থ মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ১৪ ধারা ও দুদক বিধিমালার ১৮ বিধি অনুযায়ী অবরুদ্ধ করতে আদেশের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

এর আগে আয়কর নথিসহ অন্যান্য নথিপত্রে দেড়শত কোটি সম্পদের অস্তিত্ব পাওয়ার তথ্য জানিয়ে বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা জারি করে গত ১৯ নভেম্বর চিঠি দেয় দুদক। পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) ইমিগ্রেশন বরাবর পাঠানো চিঠিতে সহকারী পরিচালক মো. শফিউল্লাহ ওই অনুরোধ করেন।

চিঠিতে বলা হয়, দেশে মানিলন্ডারিংসহ বিদেশে অর্থ পাচারের অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। দুদকের কাছে দেশ ছেড়ে অন্য দেশে যাওয়ার তথ্য থাকায় এ বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ করা গেল।

আরো পড়ুন : দেশটিভির আরিফের দেড় কোটি টাকা জব্দ


ঢাকা/এম এ রহমান/সাজেদ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন