ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ মাঘ ১৪২৬, ২১ জানুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

১১৫ কোটি টাকা নিয়ে স্বামী-স্ত্রী উধাও

এম এ রহমান মাসুম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০৭ ১০:৫৪:১০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০৮ ১০:৩৬:২২ পিএম

সাউথইস্ট ব্যাংক থেকে ১১৫ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান গুটিয়ে দেশ ছেড়েছেন ব্যবসায়ী স্বামী-স্ত্রী।

শুধু তাই নয়, ব্যবসার নামে পাচার হয়ে গেছে অধিকাংশ অর্থ। চালকল এবং মাছ ও মুরগির খাদ্য সংক্রান্ত ব্যবসার কথা থাকলেও বর্তমানে কারখানা দুটিতে উৎপাদন সম্পূর্ণ বন্ধ।

সাউথইস্ট ব্যাংকের নওগাঁ শাখা থেকে এমন জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে। জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড ও মেসার্স শুভ ফিড প্রসেসিংয়ের মালিক ওই ব্যবসায়ী স্বামী-স্ত্রী ভারতে টাকা পাচার করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। একইসঙ্গে নিজেরাও ভারতে পালিয়ে গেছেন বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। ব্যবসায়ী ওই দম্পতির নাম গোপাল আগারওয়াল ও দীপা আগারওয়াল।

জানা গেছে, নওগাঁ শহরের পোস্ট অফিসপাড়া এলাকার বাসিন্দা ওই দম্পত্তি। বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা জগন্নাথনগর এলাকায় অবস্থিত গোপাল আগারওয়াল জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এবং দীপা আগারওয়াল মেসার্স শুভ ফিড প্রসেসিং নামের দুটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী তারা।

ঋণের মধ্যে সাউথইস্ট ব্যাংকের নওগাঁ শাখা থেকে গোপাল আগরওয়ালাকে ৮৪ কোটি ১৩ লাখ ৮৮ হাজার টাকা এবং তার স্ত্রী দীপাকে ৩০ কোটি ৮০ লাখ ১৪ হাজারসহ মোট ১১৪ কোটি ৯৪ লাখ দুই হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে।

চলতি বছরের ৯ অক্টোবর সাউথইস্ট ব্যাংকের নওগাঁ শাখার প্রধান কামারুজ্জামান সদর থানায় ওই দম্পত্তির বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

অভিযোগের সূত্র ধরে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অভিযোগ অনুসন্ধানে দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপসহকারী পরিচালক মো. আবুল কালাম আজাদকে অনুসন্ধান কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে দুদকের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা রাইজিংবিডিকে নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইল দুদক সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখত অনুসন্ধান পর্যায়ে কোনো বক্তব্য দিতে অস্বীকার করেন।

বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া তথ্যানুসারে, গোপাল আগারওয়াল ও দীপা আগারওয়ালের মালিকানাধীন জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড ও মেসার্স শুভ ফুড প্রসেসিং ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দুটি বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার জগন্নাথপুর এলাকায় বগুড়া-নওগাঁ আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে অবস্থিত।

জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড মূলত স্বয়ংক্রিয় চালকল এবং মেসার্স শুভ ফিড প্রসেসিং প্রতিষ্ঠানে মাছ ও মুরগির খাদ্য তৈরি করা হয়। অতি সম্প্রতি কারখানা দুটির উৎপাদন বন্ধ হয়ে গেছে। মূল ফটকে সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড নওগাঁ শাখার পক্ষ থেকে সম্পত্তির তফসিল উল্লেখ করে নোটিশ টানানো হয়েছে। প্রতিষ্ঠান দুটিতে কোনো শ্রমিক কিংবা কর্মকর্তার দেখা পাওয়া যায়নি। তবে নিরাপত্তার জন্য ব্যাংকের পক্ষ থেকে নিরাপত্তারক্ষী রয়েছে।

অন্যদিকে সাউথইস্ট ব্যাংক সূত্র বলছে, গোপাল আগারওয়াল ব্যবসায় বিনিয়োগের জন‌্য তার মালিকানাধীন জেএন ইন্ডাস্ট্রিজের নামে সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেডের নওগাঁ শাখা থেকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মেয়াদে মোট ৮৪ কোটি ১৩ লাখ ৮৮ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছেন। এ ছাড়া তার স্ত্রী দীপা আগারওয়াল নিজের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান মেসার্স শুভ ফিড প্রসেসিংয়ে বিনিয়োগের জন্য বিভিন্ন সময় মোট ৩০ কোটি ৮০ লাখ ১৪ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছেন। ওই ব্যবসায়ী দম্পতি ব্যাংকটি থেকে মোট ১১৪ কোটি ৯৪ লাখ দুই হাজার টাকা ঋণ নিয়েছেন।

গত ১৫ অক্টোবর গোপাল আগারওয়ালার জেএন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে সাউথইস্ট ব্যাংক নওগাঁ শাখার পক্ষ থেকে সম্পত্তির তফসিল উল্লেখ করে নোটিশও ঝোলানো হয়।

সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, মোট ৪৩৪ শতক জমিতে অবস্থিত (১৩ দশমিক ১৫১ বিঘা) ইন্ডাস্ট্রির সব কার্যক্রম বন্ধ, ভেতরের সরঞ্জামগুলোতে মরিচা ধরা শুরু করেছে। গুদাম ঘরগুলো ফাঁকা রয়েছে। প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে তিন জন কর্মচারীকে দেখভালের জন্য রাখা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানে যে ৪৫ জন কর্মচারী ছিল তাদের বেশ কয়েকমাস থেকে বেতনও দেওয়া হয়নি।


ঢাকা/এম এ রহমান/সনি