ঢাকা, শুক্রবার, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৫ জুন ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

করোনায় নতুন কৌশলে নামতে পারে অপরাধীরা

মাকসুদুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০২০-০৪-০৬ ৮:০৫:৫৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০২০-০৪-০৬ ৮:২৫:২৭ পিএম

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের আশঙ্কায় ঘরবন্দি মানুষ। বাইরে জনসমাগম ও চলাচল বন্ধ থাকায় কিছু অপরাধ কমেছে। তবে করোনার কারণে আর্থিক সংকট দেখা দিলে অপরাধীরা নতুন কৌশলে মাঠে নামতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও অপরাধ বিশেষজ্ঞ ড. জিয়া রহমান রাইজিংবিডিকে বলেছেন, ‘বেকারত্ব বাড়লে অপরাধও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। অধিকাংশেরই অর্থনৈতিক অবস্থা দুর্বল। তারা চুরি, ছিনতাই, পকেটমারাসহ নানা অপকর্মে লিপ্ত হতে পারে। অভাবের তাড়নায় বিভিন্ন বাসায় হানা দিতে পারে। এ কারণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সতর্ক থাকতে হবে।’

পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক বলেছেন, ‘রাস্তায় লোকজন বা যানবাহন চলাচল নেই। এ কারণে হয়তো অপরাধীরা আড়ালে গেছে। অপরাধও কমেছে। কিন্তু মনে রাখতে হবে, বেশি দিন এমন থাকবে না। পুলিশসহ সরকারের সবগুলো সংস্থাকে নিশ্চিত করতে হবে যে, অপরাধীরা যাতে আগের জায়গায় ফিরে আসতে না পারে।’

রোববার (৫ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর ফকিরাপুল মোড়ে কথা হয় মতিঝিল থানার এক উপ-পরিদর্শকের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘তেমন অপরাধ হচ্ছে না। কেননা সবাই বাড়িতে থাকে। যারা ১২ মাস অপরাধ করতো তারাও আতঙ্কে রাস্তায় নামছে না।’

পুলিশ বলছে, মার্চ থেকে রাজধানীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। ফেব্রুয়ারিতে ঢাকার প্রতিটি থানায় গড়ে ৬০-৭০টি মামলা হয়েছে। অথচ মার্চে হয়েছে গড়ে ৪০-৫০টি। সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর বেশিরভাগ থানায় মামলা হয়নি একটিও। পুলিশ ও র‌্যাবের পাশাপাশি রাস্তায় নেমেছে সেনাবাহিনী। রাজধানীতে প্রতি মুহূর্তেই চলছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহল। চেকপোস্ট বসিয়ে চলছে অপরাধ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা। ফাঁকা ঢাকায় অন্যান্য সময় অপরাধের পরিমাণ বাড়লেও এবার চিত্র ভিন্ন। ফেব্রুয়ারির চেয়ে মার্চে অপরাধ কমেছে প্রায় অর্ধেক।

মার্চ মাসে সবচেয়ে বেশি মামলা হয়েছে যাত্রাবাড়ী থানায় ৯৫টি। আর সর্বনিম্ন হয়েছে রূপনগর থানায় ১৮টি। যেখানে ফেব্রুয়ারিতে যাত্রাবাড়ীতে ১৩৫ ও রূপনগরে ৩২টি মামলা হয়। একইভাবে অন্য থানাগুলোতে মামলা কমে হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, আদালতগুলোতে এখন তেমন জামিন হচ্ছে না। এ কারণে কারাগার থেকে কোনো অপরাধী বের হতে পারছে না। আবার যারা দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীতে পেশাদার অপরাধী হিসেবে কাজ করেছে তারা করোনার আতঙ্কে বাইরে বের হচ্ছে না। তবে তারা আর্থিক সংকটে পড়লে আবার অপরাধে জড়িয়ে পড়তে পারে। এমন শঙ্কায় পুলিশের সবগুলো ইউনিটকে সতর্ক থাকতে বিশেষ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


ঢাকা/মাকসুদ/রফিক