Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১ ||  শ্রাবণ ২০ ১৪২৮ ||  ২৩ জিলহজ ১৪৪২

ঢাকা মহানগর আ.লীগে নতুন মুখ ৩৫ শতাংশ

এসকে রেজা পারভেজ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২২:১২, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ০৮:১২, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০
ঢাকা মহানগর আ.লীগে নতুন মুখ ৩৫ শতাংশ

প্রায় ১০ মাস পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দিয়েছে আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ শাখা। কমিটিতে প্রায় ৩৫ শতাংশ নতুন মুখকে স্থান দেওয়া হয়েছে। এসব নতুন মুখের মধ্যে আছেন ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক নেতারা। জায়গা পেয়েছেন থানা কমিটির প্রতিশ্রুতিশীল বেশ কয়েকজন নেতাও।

পুরনোদের মধ্যে জায়গা পেয়েছেন ত্যাগী এবং বিতর্কহীন নেতারা। কয়েক দফা বিচার-বিশ্লেষণ করে কমিটি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট চার নেতা।

গত ৩০ নভেম্বর ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। উত্তরে সভাপতি হিসেবে শেখ বজলুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মান্নান কচি দায়িত্ব পান। দক্ষিণে সভাপতি হিসেবে আবু আহাম্মদ মন্নাফি এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে হ‌ুমায়ূন কবিরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

যেসব জেলা, মহানগরে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সম্মেলন হয়েছে, অথচ পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি; সেসব কমিটি ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ‌্যে জমা দেওয়ার জন‌্য সংগঠনের সব শাখার প্রতি নির্দেশ দিয়েছে আওয়ামী লীগ। এর অংশ হিসেবে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই কমিটি জমা দিলো আওয়ামী লীগের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই দুই ইউনিট।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগর উত্তরের কমিটির ৭১ জনের মধ‌্যে প্রায় ৬০ ভাগ আগের কমিটিতে ছিলেন। প্রায় ৪০ ভাগ নেতা নতুনভাবে পদ পেয়েছেন। পুরনোদের মধ্যে প্রতিশ্রুতিশীল এবং সাংগঠনিকভাবে দক্ষদের রাখা হয়েছে। অন্যদিকে, নতুনদের মধ্যে আছে ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক নেতারা। বেশ কয়েকজন রয়েছেন যারা উত্তরের বিভিন্ন থানা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে ছিলেন। বেশ কয়েকজন ওয়ার্ড কাউন্সিলর মহানগর উত্তরের কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন।

ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘নবীন-প্রবীণ সমন্বয় করে কমিটি দেওয়া হয়েছে। যারা যোগ্য এবং প্রতিশ্রুতিশীল তারাই কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন। কমিটি করার ক্ষেত্রে বৃত্তান্ত বিচার-বিশ্লেষণ করা হয়েছে। এখন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন নেত্রী (আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা)।’

এদিকে, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ইউনিটও ৭১ সদস‌্যের কমিটি জমা দিয়েছে।  এতে প্রায় ৭০ ভাগ পুরনো এবং প্রায় ৩০ ভাগ নতুন নেতা স্থাপ পেয়েছেন। কমিটিতে নতুনদের মধ্যে এসেছেন এমন নেতারা, যারা দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছেন, ১০-১২ বছর যুবলীগে থেকেছেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত ছিলেন। নতুনদের মধ্যে বিভিন্ন ওয়ার্ডের কয়েকজন কাউন্সিলরও আছেন। এছাড়া, মহানগরের বিভিন্ন থানা কমিটির নেতা মহানগর কমিটিতে সহ-সভাপতি ও সদস্য পদে জায়গা পেয়েছেন। পুরনোদের মধ‌্যে অনেককে তাদের যোগ্যতা অনুযায়ী পদ দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, বাদ পড়েছেন বিতর্কিত এবং সাংগঠনিকভাবে অদক্ষরা।
ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহাম্মদ মন্নাফি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগকে সাংগঠনিকভাবে দক্ষ এবং গতিশীল করতে নবীন-প্রবীণদের সমন্বয় করে কমিটি করা হয়েছে। তবে আমরা তারুণ‌্যকে বেশি প্রধান্য দিয়েছি। এক ঝাঁক প্রতিশ্রুতিশীল তরুণ নেতা কমিটিতে স্থান পেয়েছেন।’

ঢাকা/পারভেজ/রফিক

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়