Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     মঙ্গলবার   ১৯ অক্টোবর ২০২১ ||  কার্তিক ৩ ১৪২৮ ||  ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মেয়াদ এক বছর, চলছে ৯ বছর!

এসকে রেজা পারভেজ || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১০:০১, ৯ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১০:০৩, ৯ নভেম্বর ২০২০
মেয়াদ এক বছর, চলছে ৯ বছর!

ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটে বছরের পর বছর চলছে একই কমিটি দিয়ে। এতে নতুন নেতৃত্ব যেমন তৈরি হচ্ছে না, তেমনি সাংগঠনিক চেইনও ভেঙে পড়েছে। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ‌্যে আছে ক্ষোভ, হতাশা। ছাত্রলীগের সার্বিক কর্মকাণ্ড নিয়ে রাইজিংবিডির জ‌্যেষ্ঠ প্রতিবেদক এসকে রেজা পারভেজ তৈরি করেছেন পাঁচ পর্বের ধারাবাহিক প্রতিবেদন। আজ পড়ুন এর প্রথম পর্ব।

হেমায়েত উদ্দিন সেরনিয়াবাতকে সভাপতি এবং মো. আব্দুর রাজ্জাককে সাধারণ সম্পাদক করে বরিশাল জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয় গত ২০১১ সালের ৯ জুলাই। 

অন্যদিকে মো. জসিমউদ্দিনকে সভাপতি এবং অসীম দেওয়ানকে সাধারণ সম্পাদক বরিশাল মহানগর কমিটি হয় একই তারিখে। ছাত্রলীগের তৎকালীন সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন ও সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার রোটন থাকাকালীন ওই কমিটি ঘোষণা হলেও এরপর আরও ৪টি কমিটি হয়েছে। কিন্তু বরিশাল জেলা ও মহানগরে পুরোনোরা রয়ে গেছেন। নতুন কোনো কমিটি হয়নি।

ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, জেলা কমিটির মেয়াদ ১ বছর থাকলেও এই দুই কমিটির বয়স ৯ বছর চলছে। শুধু বরিশাল জেলা ও মহানগরই নয়, ছাত্রলীগের প্রায় ১৪৫টি জেলার সংগঠনের সমমর্যাদা রয়েছে এমন ইউনিটের কমিটি নেই প্রায় সবগুলোর। হাতে গোনা কয়েকটির কমিটি থাকলেও এগুলোরও মেয়াদ শেষের পথে। মেয়াদোত্তীর্ণ অনেক ইউনিটের মেয়াদ শেষ হয়েছে ৭ বছর। কোনোটির ৬ বছর আবার কোনোটির ৫ বছর।

জেলা সংগঠনের সমমর্যাদা আছে ছাত্রলীগের ১২২ টির। এসব ইউনিটের খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, ২০১১ সালে ২টি, ২০১৩ সালে ৩টি, ২০১৪ সালে ৯টি, ২০১৫ সালে ১৮টি, ২০১৬ সালে ১১টি, ২০১৭ সালে ২২টি, ২০১৮ সালে ৩০টি এবং ২০১৯ সালে ২টি কমিটি ঘোষণা করা হয়। অন্যদিকে কমিটি নেই বা বিলুপ্ত করা হয়েছে ১৮টি ইউনিটের। যেখানে কমিটি নেই বা বিলুপ্ত করা হয়েছে, সেখানেও দীর্ঘদিন কমিটি করা হয়নি। ১১৮টি ইউনিটের মধ্যে গত বছর নড়াইল, কিশোরগঞ্জ, চাঁদপুরে কমিটি হয়। এসব কমিটির মেয়াদও প্রায় শেষের পথে।

মেয়াদ নেই যেসব জেলা ইউনিটের, তার মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের শাখা রয়েছে। এই শাখায় সঞ্জিত চন্দ্র দাসকে সভাপতি এবং সাদ্দাম হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি গঠন হয় ২০১৮ সালের ৩১ জুলাই। একই তারিখে ঘোষণা করা হয় ঢাকা মহানগর উত্তর (সভাপতি  মো. ইব্রাহিম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক-সাইদুর রহমান হৃদয়) ও দক্ষিণের (সভপতি মেহেদী হাসান, সাধারণ সম্পাদক মো: জোবায়ের আহমেদ)। 

অন্যদিকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইডেন কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, ও সোহরাওয়ার্দী কলেজে সম্মেলন হলেও কমিটি নেই দীর্ঘদিন। ঢাকা কলেজের কমিটি বিলুপ্ত হয়েছে অনেক আগে। সেখানে কমিটি নেই। তিতুমীর কলেজ ছাত্রলীগের মেয়াদ নেই। তিন বছর আগে বিলুপ্ত হয়েছে সরকারি বাংলা কলেজের মেয়াদ। বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের কমিটিরও মেয়াদ ফুরিয়েছে অনেক আগে।

এছাড়া মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির মধ্যে রয়েছে ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগ। এই কমিটি (সভাপতি সাইদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনির) ঘোষণা হয় ২০১৮ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি। একই তারিখে হয় ঢাকা জেলা ছাত্রলীগ দক্ষিণের (সভাপতি গিয়াসউদ্দিন সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক এহসান আরাফ অনিক) কমিটি।  বাংলাদেশে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি (সভাপতি খন্দকার জামী উস সামী, সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল) হয় ২৬ এপ্রিয় ২০১৮ সালে। 

মেয়াদ নেই এমন ইউনিটের তালিকায় আরও রয়েছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেশনালস (কমিটি নেই), শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি ২০১৭ সালের ২৬ নভেম্বর (সভাপতি  এস এম মাসুদুর রহমান মিঠু, সাধারণ সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান মিজান), জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি ২০১৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর (সভাপতি জুয়েল রানা, সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু সুফিয়ান চঞ্চল), বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি ২০১৭ সালের ২৩ জুলাই (সভাপতি নাজমুস  আলম সাকিব, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম লিংকন), সম্মিলিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি (সভাপতি জাহিদ হাসান পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক মো. আজিজুল হাকিম সম্রাট ) হয় ২০১৮ সালের ২মে। গাজীপুর জেলা ইউনিটের কমিটি (সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জাহিদ আলম রবিন) হয় ২০১৫ সালের ৩১মে, গাজীপুর মহানগর ইউনিটের কমিটি নেই, ঢাকা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি (সভাপতি তাইবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক বিনয় ব্যানার্জী) হয় ২০১৮ সালেল ২৬ এপ্রিল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি (সভাপতি ফজলে রাব্বী বাধন, সাধারণ সম্পাদক মীর ওবায়দুর রহমান শাওন) হয় ২০১৭ সালের ৮ অক্টোবর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ে কমিটি নেই, মানিকগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি (সভাপতি রাজু আহমেদ বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুন) ঘোষণা হয় ২০১৭ সালের ১৩ মার্চ। টাঙ্গাইল জেলায় আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে চলছে ৪ বছর। মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও  প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কমিটি (সভাপতি সজীভ তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান ) ঘোষণা হয়, নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ৯ অক্টোবর ২০১৭ (সভাপতি হাসিবুল ইসলাম মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক আহসানুল ইসরাম রিপন), গোপালগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২ এপ্রিল ২০১৩ (সভাপতি  আবদুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক), বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কমিটি নেই, ২০১৫ সাল থেকে শরীয়তপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি চলছে আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে (আহ্বায়ক মহসিন মাতবর, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপু), মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ৮ এপ্রিল ২০১৫ সালে (সভাপতি  জাহিদ হাসান অনিক, সাধারণ সম্পাদক বায়েজীদ হাওয়লাদার), ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২৮ মে ২০১৫ সালে (সভাপতি নিশান মাহমুদ শামীম, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম), কিশোরগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৪ (সভাপতি শফিকুল গনি ঢালী লিমন, সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী), নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ১০ মে ২০১৮ (আজিজুল ইসলাম আজিজ, সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসমাইল রাফেল), নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় একই দিনে।

খুলনা বিভাগের মধ্যে খুলনা মহানগরে কমিটি ঘোষণা করা হয় ৮ জুন ২০১৫ সালে (সভাপতি শেখ শাহজালাল হোসেন সুজন, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল), খুলনা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২৯ জুলাই ২০১৭ (সভাপতি পারভেজ হাওলাদার, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন ইমু), খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি নেই, কুয়েটে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২৯ জুলাই ২০১৭ সালে (সভাপতি আবুল হাসান শোভন, সাধারণ সম্পাদক সাদমান নাহিয়ান সেজান), ঝিনাইদহ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ১০ মে ২০১৮ সালে (সভাপতি রানা হামিদ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল), মাগুরা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষষা হয় ৯ মে ২০১৭ সালে (সভাপতি মীল মেহেদী হাসান রুবেল, সাধারণ সম্পাদক মো. আলী হোসেন), মেহেরপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ৮ জানুয়ারি ২০১৮ সালে (সভাপতি আব্দুস সালাম বাধন, মোস্তাসির জামান মৃদুল), চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২ জুন ২০১৭ সালে (সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ারদার, সাধারণ সম্পাদক মো. জনিফ), সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ১ ডিসেম্বর ২০১৭ সালে (সভাপতি রেজাউল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাদিকুর রহমান), ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ১৩ জুলাই ২০১৯ (সভাপতি এসএম রবিউল ইসলাম পলাশ, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব), বাগেরহাট জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ৪ জুলাই ২০১৫ সালে (সভাপতি মনির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নাহিয়ান আল সুলতান), যশোরে কমিটি বিলুপ্ত হয়েছে অনেক আগে, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ১৬ মে ২০১৪ সালে (সভাপতি সুব্রত বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক এসএম শাহীন), কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ১৪ জুলাই ২০১৬ সালে (সভাপতি ইয়াসির আহমেদ তুষার, সাধারণ সম্পাদক সাদ আহমেদ)।

রংপুর বিভাগের মধ্যে পঞ্চগড় জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২২ জুলাই ২০১৫ সালে (সভাপতি মো. আকতারুজ্জামান আকতার, সাধারণ সম্পাদক মারুফ রায়হান), কুড়িগ্রাম জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ২০১৭ সালে (সভাপতি রাকিবুজ্জামান রাকিব, সাধারণ সম্পাদক মারুফ রায়হান), লালমনিরহাট জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২৭ এপ্রিল ২০১৮ সালে (সভাপতি জাবেদ হোসেন বক্কর, সাধারণ সম্পাদক ইয়াকুব আলী), দিনাজপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ১৭ অক্টোবর ২০১৭ সালে (সভাপতি তানভীর ইসলাম রাহুল, সাধারণ সম্পাদক  গোলাম ইমতিয়াজ ইনান), ঠাকুরগাঁও জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ১৯ জুলাই ২০১৫ সালে (সভাপতি মাহবুব হাসান রনি, সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার পারভেজ পুলক), রংপুর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ৯ ডিসেম্বর ২০১৪ (সভাপতি মেহেদী হাসান সিদ্দিক রনি, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম কানন), এর এক বছর আগে ২৯ জুলাই ২০১৩ সালে ঘোষণা করা হয় রংপুর মহানগরের কমিটি (সভাপতি সাফিয়ার হোসেন স্বাধীন, সাধারণ সম্পাদক শেখ আসিফ হাসান), বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয় ৪ এপ্রিল ২০১৭ সালে (সভাপতি আবু মোন্নাফ আল কিবরিয়া, সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান নোবেল), গাইবান্ধা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা হয় ২ মে ২০১৮ সালে (সভাপতি মোহাম্মদ আসিফ সরকার, সাধারণ সম্পাদক মোসাদ্দেক হোসাইন মামুন), নীলফামারী জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ১ মে ২০১৭ সালে (সভাপতি মনিরুল হাসান শাহ আপেল, সাধারণ সম্পাদক মো. মাসুদ সরদার), হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি নেই।

রাজশাহী বিভাগের মধ্যে বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ১২ মে ২০১৫ সালে (সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, সাধারণ সম্পাদক অসীম কুমার রায়), জয়পুরহাট জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ২০১৪ সালে (সভাপতি জাকারিয়া হোসেন রাজা, সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক রেজা), সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ৬ মে ২০১৮ সালে (সভাপতি আহসান হাবিব খোকা, সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ বিন আহম্মদ), রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি নেই। নাটোর জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ২০১৪ সালে (সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমস, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম মাসুম), চাপাইনবাবগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ২৮ এপ্রিল ২০১৮ সালে (সভাপতি আরিফুর রেজা রিপন, সাধারণ সম্পাদক সাইফ জামান আকন্দ), নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ৯ জানুয়ারি ২০১৮  সালে (সভাপতি রাব্বির রহমান রিজভী, সাধারণ সম্পাদক মো. আমানুজ্জামান রাজীব), রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি হয় ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৪ সালে (সভাপতি রকি কুমার ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজীব), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি হয় ১১ ডিসেম্বর ২০১৬ সালে (সভাপতি গোলাম কিবরিয়া, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমদ রুনু), রুয়েট ছাত্রলীগের কমিটি হয় ১১ ডিসেম্বর ২০১৬ সালে (সভাপতি নাঈম রহমান নিবিড়, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাহফুজুর রহমান তপু), রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ৭ জুলাই ২০১৪ সালে (সবাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, সাধারণ সম্পাদক মো. মিরাজুল ইসলাম, পাবনা জেলা ছাত্রলীগের কমিটি হয় ২৭ জানুয়ারি ২০১৮ সালে (সভাপতি শিবলী সিদ্দক, সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম), পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি হয় একই তারিখে (সভাপতি মাহমুদ চৌধুরী আসিফ, সাধারণ সম্পাদক ফরিদুর ইসলাম বাবু)।

সিলেট বিভাগের সিলেট মহানগরে এবং জেলায় কমিটি নেই। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি হয় ৮ মে ২০১৬ সালে (সভাপতি রুহুল আমিন, সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান), সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি নেই। সুনামগঞ্জ জেলার কমিটি হয় ২৪ প্রিল ২০১৮ (সভাপতি দীপংকর কান্তি দে, সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান রিপন), মৌলভীবাজার জেলার কমিটি হয় ২৩ এপ্রিল ২০১৮ (সভাপতি আমিরুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম), হবিগঞ্জে জেলার কমিটি হয় ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ (সভাপতি মাইদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মহিবুর রহমান মাহি)।

বরিশাল বিভাগের পিরোজপুর জেলার কমিটি হয় ৬ মে ২০১৮ সালে (সভাপতি জাহিদুল ইসলাম টিটু, সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিক), ভোলা জেলার কমিটি হয় ৯ মে ২০১৫ সালে (সভাপতি ইব্রাহিম চৌধুরী পাপন, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ মাহমুদ), পটুয়াখালী জেলার কমিটি হয় ২৬ জুলাই ২০১৭ (সভাপতি হাসান শিকদার, সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক), পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ‌্যালয়ের কমিটি হয় ২৫ জুলাই ২০১৭ (সভাপতি মোশায়েদুল আদনান অনিক, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম)। বরগুনা জেলার কমিটি হয় ২০১৬ সালে (সভাপতি জোবায়ের আদনান অনিক, সাধারণ সম্পাদক তানভীলর হোসাইন)। ঝালকাঠি জেলার কমিটি হয় ২০১৬ সালে (সভাপতি মো. শফিকুল ইসরাম, সাধারণ সম্পাদক এইচএম আল আমিন), বরিশাল জেলার কমিটি হয় ৯ জুলাই ২০১১ সালে (সভাপতি হেমায়েত উদ্দিন সেরনিয়াবাত, সাধারণ সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক), একই তারিখে কমিটি হয় বরিশাল মহানগর ছাত্রলীগেরও (সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অসীন দেওয়ান), বরিশাল বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি নেই।

চট্টগ্রাম বিভাগে চট্টগ্রাম উত্তর ছাত্রলীগের কমিটি হয় ৫ মে ২০১৮ সালে (সভাপতি তানভীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক  রেজাউল করিম), চট্টগ্রাম দক্ষিণের কমিটি হয় ১৫ অক্টোবর ২০১৭ সালে (সভাপতি এসএম বোরহানউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের), চট্টগ্রাম মহানগরে কমিটি হয় ৩০ অক্টোবর ২০১৩ সালে (সভাপতি ইমরান হোসেন ইমু, সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর), চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ‌্যালয়ের কমিটি হয় ১৩ জুলাই ২০১৯ (সভাপতি রেজাউল করিম, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপু), চট্টগ্রাম ভেটেনারি অ্যান্ড এনিম‌্যাল সায়েন্স বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি নেই। চুয়েটে কমিটি হয় ৬ মে ২০১৮ সালে (সভাপতি সৈয়দ ইমাম বাকের, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সম্রাট), বান্দরবান জেলার কমিটি হয় ১৯ জুলাই ২০১৫ সালে (সভাপতি কাউসার সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক জনী সুশীল), রাঙামাটি জেলার কমিটি হয় ৩ জুন ২০১৫ সালে (সভাপতি আবদুল জব্বার সুজন, সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা), রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি নেই, খাগড়াছড়ি জেলার কমিটি হয় ২৬ জুলাই ২০১৫ সালে (সভাপতি টিকো চাকমা, সাধারণ সম্পাদক  জহির উদ্দিন ফিরোজ), কক্সবাজার জেলার মেয়াদ শেষ হয় ২০১৬ সালের ১০ জানুয়ারি। তবে ২ নভেম্বর সাদ্দাম হোসেনকে সভাপতি এবং মারুফ আদনানকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি অনুমোদন দিয়েছে ছাত্রলীগ। 

লক্ষ্মীপুর জেলার কমিটি হয় ২৫ এপ্রিল ২০১৮ সালে (সভাপতি  শাহাদাত হোসেন শরীফ, সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল করিম নিশান), নোয়াখালী জেলার কমিটি হয় ১৮ অক্টোবর ২০১৭ সালে (সভাপতি আসাদুজ্জামান আরমান, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসনাত আদনান), নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি হয় ১৮ অক্টোবর ২০১৭ সালে (সভাপতি শরিফুল ইসরাম রবিন, সাধারণ সম্পাদক সাকিব মোশাররফ), চাঁদপুর জেলার কমিটি হয় ২৯ ডিসেম্বর ২০১৬ সালে (সভাপতি : আতাউর রহমান পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক পারভেজ করিম বাবু), ফেনী জেলার কমিটি হয় ১৪ মে ২০১৫ সালে (সভাপতি এম সালাহ উদ্দিন পিরোজ, সাধারণ সম্পাদক জাবেদ হায়ধার জর্জ), ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া জেলার কমিটি হয় ১২ ফেব্রুয়ারি  ২০১৮ সালে (সভাপতি রবিউল হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শোভন), কুমিল্লা উত্তরের কমিটি হয় ৬ ডিসেম্বর ২০১৪ সালে (সভাপতি আবু কায়সার অনিক, সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ উদ্দিন ফকির), কুমিল্লা জেলা দক্ষিণের কমিটি হয় ২২ জুলাই ২০১৫ সালে (সভাপতি, আবু তৈয়ব আপি, সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন রুবেল)। 
কুমিল্লা মহানগরে ২০১৫ সালের ২২ জুলাই আবদুল আজিজ সিহানুকে আহ্বায়ক করে কমিটি হয়। গত ৫ বছর ধরে এ কমিটি দিয়েই চলছে সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড। কুমিল্লা বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি হয় ২৯ মে ২০১৭ সালে (সভাপতি ইলিয়াস হোসেন সবুজ-সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মাজেদ)।

ময়মনসিংহ বিভাগের ময়মনসিংহ জেলার কমিটি হয় ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ সালে (সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রাকিব-সাধারণ সম্পাদক সরকার মো. সব‌্যসাচী), ময়মনসিংহ মহানগরে কমিটি নেই। বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ‌্যোলয়ে কমিটি হয় ১৭ নভেম্বর ২০১৬ সালে (সভাপতি মো. সবুজ কাজী, সাধারণ সম্পাদক মিয়া মো. রুবেল), কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি হয় ৭ এপ্রিল ২০১৭ সালে (সভাপতি  নজরুর ইসলাম বাবু, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিব)। নেত্রকোনা জেলার কমিটি হয় ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে (সভাপতি ফাইজুর মোর্শেদ খান অমি, সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান জনি), শেখ হসিনা বিশ্ববিদ‌্যালয়ে ও শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ‌্যালয়ে কমিটি নেই। জামালপুর জেলার কমিটি হয় ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ সালে (সভাপতি নিহাদুল আলম নিহাদ, সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ বিন জালাল প্লাবন)। শেরপুর জেলার কমিটি হয় ২৮ জানুয়ারি ২০১৮ সালে (সভাপতি শোয়েব হাসান শাকিল, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা)।

এ সম্পর্কে ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় রাইজিংবিডিকে বলেন, দীর্ঘদিন ধরে যেসব ইউনিটে কমিটি হচ্ছে না, সেগুলোকে অগ্রাধিকার দিয়ে সম্মেলনের বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছি। আস্তে আস্তে মেয়াদোত্তীর্ণ সব ইউনিটে নতুন কমিটি গঠনের কাজ শুরু হবে।

পারভেজ/সাইফ

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়